দেশের দুই জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। এর মধ্যে নোয়াখালীর সেনবাগে পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষে তিনজন এবং সাভারে বলিয়ারপুরের এসএন সিএনজি পাম্পের সামনে আরেকটি দুর্ঘটনায় মারা যান তিনজন। ঢাকাটাইমসের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।
 

দেশের দুই জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। এর মধ্যে নোয়াখালীর সেনবাগে পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষে তিনজন এবং সাভারে বলিয়ারপুরের এসএন সিএনজি পাম্পের সামনে আরেকটি দুর্ঘটনায় মারা যান তিনজন। ঢাকাটাইমসের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।


নোয়াখালীর সেনবাগে অটোরিকশার সঙ্গে পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে একই পরিবারের দুই জনসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।

সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ফেনী-নোয়াখালী মহাসড়কের সেনবাগ রাস্তার মাথা নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে একটি অটোরিকশার সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হন। আহত হন ছয়জনের মতো। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পর আরও দুজনের মৃত্যু হয়।

হাইওয়ে পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) শাহজাহান খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অন্যদিকে ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভারের বলিয়ারপুরের এসএন সিএনজি পাম্পের সামনে পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষে প্রকৌশলীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।

নিহতরা হলেন- প্রকৌশলী জহুরুল ইসলাম, চালক খলিলুর রহমান ও নুরন্নবী। তারা মীর আখতার গ্রুপে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ জানায়, মীর আখতার গ্রুপের পিকআপে করে সিরাজগঞ্জ থেকে ঢাকায় ফিরছিলেন তিন জন। পিকআপটি এসএন সিএনজি পাম্পের সামনে আসার পর সামনে থাকা একটি ট্রাককে পেছন দিয়ে ধাক্কা দিয়ে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই পিকআপে থাকা ইঞ্জিনিয়ার জহুরুল ইসলাম, চালক খলিলুর ও নুরন্নবী নিহত হন।

দুর্ঘটনায় তিনজনের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আসগর আলী। তিনি জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ তিনটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোরওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Post A Comment: