ব্রাজিলিয়ান এক উইঙ্গারকে নিয়ে ইউরোপিয়ান ফুটবলে শুরু হয়েছে তুঘলকি কাণ্ড। ২১ বছর বয়সী ফুটবলার খেলছিলেন ফরাসি ক্লাব বোর্দোয়। সেখান থেকে তাকে কিনে নেওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করে ফেলেছিল ইতালিয়ান ক্লাবে এএস রোমা। বিমানের টিকিটও পাঠিয়ে দিয়েছিল তারা। কিন্তু এর মধ্যে ম্যালকমকে বোর্দো থেকে ‘ছো’ মেরে নিয়ে গেছে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। আর ‘বাড়া ভাতে ছাই দেওয়ায়’ বার্সেলোনার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তা ভাবনা করছে রোমা।
 

ব্রাজিলিয়ান এক উইঙ্গারকে নিয়ে ইউরোপিয়ান ফুটবলে শুরু হয়েছে তুঘলকি কাণ্ড। ২১ বছর বয়সী ফুটবলার খেলছিলেন ফরাসি ক্লাব বোর্দোয়। সেখান থেকে তাকে কিনে নেওয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করে ফেলেছিল ইতালিয়ান ক্লাবে এএস রোমা। বিমানের টিকিটও পাঠিয়ে দিয়েছিল তারা। কিন্তু এর মধ্যে ম্যালকমকে বোর্দো থেকে ‘ছো’ মেরে নিয়ে গেছে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। আর ‘বাড়া ভাতে ছাই দেওয়ায়’ বার্সেলোনার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার চিন্তা ভাবনা করছে রোমা।


ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার ম্যালকমের নাম ট্রান্সফার মার্কেটে খুব একটা শোনা যায়নি। বরং আরেক ব্রাজিলিয়ান উইলিয়ানকে চেলসি থেকে কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেছিল বার্সেলোনা। এরই মধ্যে ম্যালকমকে কেনার জন্য বোর্দোর সাথে কথাবার্তা চালিয়ে যায় রোমা। ৩৮ মিলিয়ন ইউরোতে ম্যালকমকে কেনার বিষয়টি মৌখিক ভাবে চূড়ান্তও করে ফেলে তারা। দুই পক্ষই বিষয়টি নিজেদের টুইটারে ঘোষণা দিয়েছিল। মেডিকেল পরীক্ষার জন্য প্লেনের টিকিটও পাঠিয়ে দেয় রোমা। এর মধ্যেই বার্সেলোনা এসে বাগড়া দেয়। তারা ম্যালকমের জন্য ৪১ মিলিয়ন ইউরো অফার দেয় বোর্দোকে। বার্সার অফার পেয়ে পল্টি খেয়ে বসে বোর্দো। ম্যালকমও মন ঘুরিয়ে আগ্রহী হয়ে ওঠে বার্সার প্রতি। ব্যাস, ৫ বছরের চুক্তি সেরে ফেলে বার্সেলোনা।

অন্যদিকে এয়ারপোর্টে ম্যালকমের অপেক্ষায় রোমার সমর্থকরা বিফল মনোরথেই ফিরে গেছেন। আর এ ঘটনায় ভীষণ খেপেছে ইতালির গণমাধ্যমগুলো। বার্সেলোনার ওপর বিষোদগার ঝাড়ছে তারা। এদিকে রোমাও খতিয়ে দেখছে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যায় কিনা।

রোমার স্পোর্টিং ডিরেক্টর মঞ্চি বলেছেন, নিজেদের মধ্যে তারা আলোচনা করছেন কোন আইনি ব্যবস্থা নেওয়া যায় কিনা। যেহেতু বোর্দোর সাথে তাদের চুক্তিটা হয়েছিল মৌখিক। কাগজে কলমে নয়। তাই ভালোভাবে খতিয়ে দেখেই আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ নেবে তারা।

Post A Comment: