আঞ্চলিক যুদ্ধে জড়িয়ে পড়া ও হজ থেকে আয় করা অর্থ যুদ্ধে খরচ করার অভিযোগ এনে সৌদি আরবে হজ করতে নিরুৎসাহিত করেছেন তিউনিসিয়ার মুসলিম সমাজের ইমামদের সংগঠন তিউনিসিয়ান ইউনিয়ন অব ইমামস'র এক উচ্চপদস্থ নেতা। এ ব্যাপারে নির্দেশনা দিতে দেশটির গ্র্যান্ড ইমামের প্রতি দাবিও করেন তিনি।
হজের টাকা মানুষ হত্যার কাজে খরচ করছে সৌদি আরব'  

আঞ্চলিক যুদ্ধে জড়িয়ে পড়া ও হজ থেকে আয় করা অর্থ যুদ্ধে খরচ করার অভিযোগ এনে সৌদি আরবে হজ করতে নিরুৎসাহিত করেছেন তিউনিসিয়ার মুসলিম সমাজের ইমামদের সংগঠন তিউনিসিয়ান ইউনিয়ন অব ইমামস'র এক উচ্চপদস্থ নেতা। এ ব্যাপারে নির্দেশনা দিতে দেশটির গ্র্যান্ড ইমামের প্রতি দাবিও করেন তিনি।


শনিবার আরাবি টুয়েন্টি ওয়ান নামক একটি ওয়েবসাইটের সাথে ইন্টারভিউতে ইউনিয়নের শীর্ষ নেতা ফাজেল আশুর দাবি করেন, হজ থেকে আসা অর্থ বিশ্বের গরীব মুসলমানদের সহায়তায় খরচ করে না সৌদি কর্তৃপক্ষ।  বরঞ্চ এসব অর্থ ইয়েমেনে মানুষ হত্যা ও গৃহহীন করতে খরচ করছে তারা।

তিনি বলেন, তিউনিশিয়ার নাগরিকদের উচিত হজ বয়কট করা এবং সে অর্থ উত্তর আফ্রিকার সংকটাপন্ন মানুষদের সহায়তায় পাঠানো উচিত।

উল্লেখ্য, ইসলামের অন্যতম স্তম্ভ হজ পালনে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে লাখ লাখ মুসলমান সৌদি আরবের মক্কায় যায়। তেল উৎপাদনের বাইরে সৌদি অর্থনীতি সবচেয়ে বড় অবদান রাখে এ হজ পালনকারীরাই।

এদিকে ২০১৪ সাল থেকে শুরু হওয়া ইয়েমেন যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছে সৌদি আরব। ইতোমধ্যে দেশটিতে ১০ হাজারও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে, আহত হয়েছে ৫০ হাজারও বেশি মানুষ। সৌদি হামলা অব্যাহত থাকায় দেশটিতে প্রতিনিয়ত মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

এ ছাড়া জাতিসংঘের পরিসংখ্যান মতে,  যুদ্ধে মানবিক বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দেশটির দুই হাজারও বেশি মানুষ কলেরা মহামারিতে মারা গেছে। যার উল্লেখ্যসংখ্যক হচ্ছে নারী ও শিশু।  সূত্র: দ্য নিউ আরব

Post A Comment: