আসন্ন রমজানে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে সারাদেশে পণ্য বিক্রি শুরু হয়েছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। রবিবার সকাল থেকে ট্রাকে করে পাঁচটি নিত্যপণ্য বিক্রি শুরু করে সরকারি এ সংস্থাটি। শুক্র এবং শনিবার বাদে সপ্তাহের বাকি পাঁচদিন নির্ধারিত স্থানে এসব পণ্য বিক্রি করা হবে।
 

আসন্ন রমজানে নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রাখতে সারাদেশে পণ্য বিক্রি শুরু হয়েছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। রবিবার সকাল থেকে ট্রাকে করে পাঁচটি নিত্যপণ্য বিক্রি শুরু করে সরকারি এ সংস্থাটি। শুক্র এবং শনিবার বাদে সপ্তাহের বাকি পাঁচদিন নির্ধারিত স্থানে এসব পণ্য বিক্রি করা হবে।


রাজধানীতে ৩২টি, চট্টগ্রামে ১০টি, অন্য বিভাগীয় শহরগুলোতে পাঁচটি এবং জেলাগুলোতে দুইটি স্থানে ট্রাকে করে পাঁচটি নিত্যপণ্য বিক্রি করা হবে।

টিসিবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ৮৫ টাকা, দেশি চিনি ৫৫ টাকা, ছোলা ৭০ টাকা, মসুর ডাল (মাঝারি সাইজ) ৫৫ টাকা, খেজুর ১২০ টাকা দরে বিক্রি করা হবে।

একজন ক্রেতা প্রতিদিন সর্বোচ্চ চার কেজি চিনি, চার কেজি মসুর ডাল, পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল, পাঁচ কেজি ছোলা ও এক কেজি খেজুর কিনতে পারবেন।

প্রতি ট্রাকে বিক্রির জন্য প্রতিদিন ৩০০-৪০০ কেজি চিনি, মসুর ডাল, সয়াবিন তেল, ছোলা এবং ৩০-৫০ কেজি খেজুর বরাদ্দ থাকবে।

রাজধানীর ৩২ স্থানে মিলবে টিসিবির পণ্য
রাজধানীতে টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হবে ৩২টি স্থানে। সেগুলো হলো-সচিবালয়ের গেট, জাতীয় প্রেসক্লাব, কাপ্তান বাজার, ভিক্টোরিয়া পার্ক, সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়, নিউমার্কেট অথবা নীলক্ষেত মোড়, শ্যামলী অথবা কল্যাণপুর, জিগাতলা মোড়, খামারবাড়ি, ফার্মগেট, উত্তরা, মিরপুর-১ নম্বর মাজার রোড, শান্তিনগর বাজার, মালিবাগ বাজার, বাসাবো বাজার, আইডিয়াল স্কুল বনশ্রী, বাংলাদেশ ব্যাংক চত্বর, মহাখালি কাঁচাবাজার, শ্যাওড়াপাড়া বাজার, দৈনিক বাংলা মোড়, শাজাহানপুর বাজার, ফকিরাপুল বাজার ও আইডিয়াল জোন, মতিঝিল বক চত্বর, খিলগাঁও তালতলা বাজার, রামপুরা বাজার, মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বর, আশকোনা হাজি ক্যাম্প, মোহাম্মদপুর টাউন হল কাঁচাবাজার, দিলকুশা, মাদারট্যাক নন্দিপারা কৃষি ব্যাংকের সামনে ও পলাশী মোড়।

এছাড়া ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলার ১৮৪টি স্থানে এবং টিসিবির নিজস্ব ১০টি খুচরা বিক্রয়কেন্দ্রে ও দুই হাজার ৭৮৪ জন পরিবেশকের কাছ থেকেও ভোক্তারা পণ্য কিনতে পারবেন।

Post A Comment: