নিজের ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য আমরা অনেক কিছুই করতে চাই। কিন্তু অনেকই আছেন শুধু সময়ের কথা চিন্তা করে এসব থেকে দূরে থাকেন। কিন্তু প্রতিদিনকার টুকটাক রূপচর্চা বা ত্বকের যত্ন যদি না নেওয়া হয় তাহলে দিনে দিনে আপনার ত্বক হয়ে যাবে শুষ্ক, রুক্ষ ও প্রাণহীন। তাই প্রতিদিন অল্প সময়ের জন্য হলেও যত্ন নিন আপনার ত্বকের। তাহলে আসুন আজ আমরা জেনে নেই কম সময়ে কীভাবে নিবেন আপনার ত্বকের যত্ন।
রূপচর্চায় ব্যয় করুন অল্প সময় 

নিজের ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য আমরা অনেক কিছুই করতে চাই। কিন্তু অনেকই আছেন শুধু সময়ের কথা চিন্তা করে এসব থেকে দূরে থাকেন। কিন্তু প্রতিদিনকার টুকটাক রূপচর্চা বা ত্বকের যত্ন যদি না নেওয়া হয় তাহলে দিনে দিনে আপনার ত্বক হয়ে যাবে শুষ্ক, রুক্ষ ও প্রাণহীন। তাই প্রতিদিন অল্প সময়ের জন্য হলেও যত্ন নিন আপনার ত্বকের। তাহলে আসুন আজ আমরা জেনে নেই কম সময়ে কীভাবে নিবেন আপনার ত্বকের যত্ন।


প্রথমে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে পরে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের পোরগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। এরপর মুখ আলতো করে ধুয়ে নিন।

রাত্রে ঘুমাতে যাবার আগে ত্বকের উপযোগী ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। ফেসপ্যাক ব্যবহারের পর ভালো একটি ময়েশ্চারাইজার দিন মুখে।

এ ছাড়া একটি প্যাক নিজেই তৈরি করে নিতে পারেন। যা অল্প সময়ে তৈরি করে নিতে পারেন।

দুই চা চামচ মধু এবং অর্ধেকটা লেবুর রস নিন। একটি পাত্রে মধু এবং লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখ ভালো করে ধুয়ে এই মিশ্রণ মুখে লাগান।

এর আগে মুখে স্টিম দিতে পারেন। তবে এক্সফলিয়েট করার পর এটা মুখে দেবেন না, লেবুর রসের কারণে মুখ জ্বলতে পারে। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

এটি ব্রণ দূর করে, মুখ পরিষ্কার করে, পোর ছোট করে, ত্বক মসৃণ করে, জ্বালাপোড়া দূর করে, ত্বকে দীপ্তি নিয়ে আসে, ত্বকের শুকনোভাব দূর করে, ত্বক থেকে ব্যাকটেরিয়া দূর করে, ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে।

লেবুর রসে থাকে আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড, যা ত্বককে এক্সফলিয়েট করতে সাহায্য করে। এটা ত্বকের মৃত কোষ দূর করে, ত্বক থেকে ময়লা ওঠায়, মেকআপ তুলে ফেলে এবং পোর খুলে ফেলতে সাহায্য করে। বিভিন্ন স্কিনকেয়ার প্রোডাক্টে আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড থাকে বটে, কিন্তু বাড়িতেই লেবুর রস ব্যবহার করলে আপনি এই উপকারিতা পেতে পারেন।

এই প্যাক ব্যবহার করার পর যদি বাইরে যান, তবে অবশ্যই ভালো সানস্ক্রিন মুখে দিয়ে যাবেন। মধু হলো প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল। এটি আপনার ত্বককে রাখে সুস্থ, প্রাকৃতিকভাবেই।

Post A Comment: