মহান মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠীর চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে এবং সমন্বয় কমিটির ৬ দফা দাবিতে রোববার সকাল ১০টায় সমাবেশ ও মিছিলি অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম এবং শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবীরা এই সমাবেশে যোগ দেবেন।
মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানদের সমাবেশ রোববার, থাকবেন ৩ মন্ত্রী 

মহান মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠীর চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে এবং সমন্বয় কমিটির ৬ দফা দাবিতে রোববার সকাল ১০টায় সমাবেশ ও মিছিলি অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম এবং শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবীরা এই সমাবেশে যোগ দেবেন।


এতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এবং নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান উপস্থিত থাকবেন।

শনিবার নৌপরিবহন মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে এক জরুরি সভায় এই সমাবেশের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এতে শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক ও নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদ এবং মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ বৈঠকের আয়োজন করে।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, আগামী ১৮ এপ্রিল সমন্বয় পরিষদের ৬ দফা দাবির ভিত্তিতে সারাদেশে জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি পেশ করা হবে।

স্বাধীনতা বিরোধী গোষ্ঠীর চক্রান্তের বিরুদ্ধে করণীয় সম্পর্কে ২২ এপ্রিল ঢাকায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের মহানগর, জেলা ও উপজেলার সকল সাবেক কমান্ডার, ডেপুটি কমান্ডার ও সহকারী কমান্ডারদের এক প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ৩০ এপ্রিল ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম এবং শ্রমিক কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা, ছাত্র, শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী, জনতার এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা, আবদুল মালেক মিয়া, ওসমান আলী, এবিএম সুলতান আহমেদ এবং মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের আহ্বায়ক আশিবুর রহমান খান প্রমুখ উপস্তিত ছিলেন।

Post A Comment: