বাংলা চলচ্চিত্রের প্রথম সুপারস্টার নায়িকা কবরী সারোয়ারকে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। এমনকী, তাকে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। মঙ্গলবার গুলশান ২-এ নিজ বাসার নিচে এ ঘটনা ঘটে। এ জন্য গুলশান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক।
কবরীকে হত্যার হুমকি 

বাংলা চলচ্চিত্রের প্রথম সুপারস্টার নায়িকা কবরী সারোয়ারকে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। এমনকী, তাকে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। মঙ্গলবার গুলশান ২-এ নিজ বাসার নিচে এ ঘটনা ঘটে। এ জন্য গুলশান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক।


গুলশানে একটি ভবনের পাঁচতলায় থাকেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংসদ ও চিত্রনায়িকা কবরী। তার অভিযোগ, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ওই ভবনের দুটি ফ্ল্যাটের কর্মচারীরা কয়েকজন বহিরাগত লোক নিয়ে বাড়ির ভেতরে প্রবেশ করতে গেলে কেয়ারটেকার এবাং নিরাপত্তাকর্মীরা বাধা দেন। কিন্তু বাড়ি রং করবেন বলে তারা জোর করে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে। ঘটনাটি কবরীর কানে গেলে ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে তিনি নিচে নেমে আসেন এবং জোর করে বাড়ির ভেতরে ঢোকার কারণ জানতে চান। এ সময় ওই দুই ফ্ল্যাটের কর্মচারী এবং বহিরাগত লোকরা কবরী ও তার ছেলের উপরে চড়াও হয়। তারা কবরীকে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে এবং মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

কবরীর দাবি, পাঁচতলা ওই বাড়ির জমিটি তার। একটি আবাসন প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে তিনি বাড়িটি নির্মাণ করিয়েছিলেন। যেটি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা মতে, মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ফ্ল্যাটের কোনো কাজ করা যাবে না। কিন্তু দুই ফ্ল্যাটের মালিক তা মানতে নারাজ। নারায়ণগঞ্জের এক প্রভাবশালী ব্যক্তির সহযোগিতায় দুই ফ্ল্যাটের মালিক বাড়িটি দখলের পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেন কবরী।

Post A Comment: