সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (১ থেকে ৫ এপ্রিল) লেনদেন মন্দা কাটিয়ে উঠেছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।
সপ্তাহান্তে ডিএসই’র লেনদেন বেড়েছে ১১১ শতাংশ 

সদ্য সমাপ্ত সপ্তাহে (১ থেকে ৫ এপ্রিল) লেনদেন মন্দা কাটিয়ে উঠেছে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)।


সপ্তাহের ব্যবধানে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন আগের সপ্তাহের তুলনায় ১১১.৪৭ শতাংশ বেড়েছে। একই সময় বিনিয়োগকারীদের ক্রয় প্রবণতায় ডিএসই’র সার্বিক মূল্য সূচক বেড়েছে ২৪৩ পয়েন্ট। ডিএসই’র সপ্তাহিক বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৭১৪ কোটি ৬২ লাখ ৭৭ হাজার ৭৮৫ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২৮৩ কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৮৫ টাকা। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ১১১.৪৭ শতাংশ।

এদিকে, গত সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন হয়েছে ৫৪২ কোটি ৯২ লাখ টাকা। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩২০ কোটি ৯২ লাখ টাকা। এ সময় ডিএসইতে শেয়ার সংখ্যায় লেনদেন বেড়েছে ৬৯.১৭ শতাংশ।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৮১ কোটি ৮৪ লাখ ৫৬ হাজার ২৫৯টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। তার আগের সপ্তাহে ডিএসইতে ৩৬ কোটি ৯৪ লাখ ২ হাজার ৪৫৬ লাখ টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছিল।


গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪১টি কোম্পানি ও ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৯৪টির, দর কমেছে ৩৩টির ও দর অপরিবর্তিত ছিল ১৩টি প্রতিষ্ঠানের। এর আগের সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৪১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছিল ১০৪টির, দর কমেছে ২০২টির।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই’র সার্বিক মূল্য সূচক বেড়েছে ২৪৩.৭৫ পয়েন্ট। এ সময় ডিএসই’র সার্বিক মূল্য সূচক ৫৫৯৭.৪৪ পয়েন্ট থেকে বেড়ে ৫৮৪১.১৯ পয়েন্টে স্থিতি পেয়েছে। এ সময় শরীয়াহ সূচক বেড়েছে ৪১.৮৯ পয়েন্ট ও ডিএস-৩০ সূচক বেড়েছে ৮৮.৫১ পয়েন্ট।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে টার্নওভার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড (বেক্সিমকো)। এ সময় কোম্পানিডিটর ১০৫ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা ডিএসই’র সর্বমোট লেনদেনের ৩.৮৮ শতাংশ।

এ সময় ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ার দর বেড়েছে ১৮.১১ পয়েন্ট। টার্নওভার তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল ব্র্যাক ব্যাংক, গত সপ্তাহে কোম্পানিটির ৯৫ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৬৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মধ্যে দিয়ে টার্নওভারের তৃতীয় অবস্থানে ছিল ইফাদ অটোস।

টার্নওভার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো- লংকাবাংলা ফাইন্যান্স, ইউনিক হোটেল, মুন্নু সিরামিক, আমরা নেটওয়ার্ক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, সিটি ব্যাংক ও বেক্সিমকো ফার্মাসিটিউক্যালস লিমিটেড।

এদিকে, সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গেইনার তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে মুন্নু সিরামিকস। সপ্তাহের শেষে কোম্পানিটির শেয়ার ৪১.৮৬ শতাংশ বেড়ে গেইনার তালিকায় শীর্ষে উঠে আসে।

গেইনার তালিকায় থাকা অন্যান্য কোম্পানিগুলো হলো- শাশা ডেনিমস, রেনউইক জেজ্ঞসর, প্রাইম ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, বেক্সিমকো, ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন বাংলাদেশ, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ ও যমুনা ব্যাংক লিমিটেড।

Post A Comment: