অনেক আগে থেকেই অন্যান্য উপাদানের মতো ত্বকের যত্নে কলার খোসা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ত্বকের মরা চামড়া তুলে ফেলা থেকে শুরু করে অতিরিক্ত তেল দূর করা, ত্বকের কালচে দাগ দূর করা, মেছতা দূর করতেও বেশ কার‌্যকরী। আপনি চাইলে শুধু কলার খোসা মুখে ঘষতে পারেন। আবার কলার খোসা দিয়ে কয়েকটি প্যাক বানিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে কলার খোসার ৩টি প্যাক তুলে ধরা হলো-
 

অনেক আগে থেকেই অন্যান্য উপাদানের মতো ত্বকের যত্নে কলার খোসা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ত্বকের মরা চামড়া তুলে ফেলা থেকে শুরু করে অতিরিক্ত তেল দূর করা, ত্বকের কালচে দাগ দূর করা, মেছতা দূর করতেও বেশ কার‌্যকরী। আপনি চাইলে শুধু কলার খোসা মুখে ঘষতে পারেন। আবার কলার খোসা দিয়ে কয়েকটি প্যাক বানিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে কলার খোসার ৩টি প্যাক তুলে ধরা হলো-


কলার

খোসা, মধু ও লেবু:


খোসাসহ অর্ধেকটা কলা চটকে পেস্ট বানান। ১ চা চামচ মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের অতিরিক্ত তেল দূর হবে।

কলার খোসা ও গোলাপজল:

মেছতার দাগ দূর করতে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। কলার খোসার ভেতরের অংশ দাগের উপর ঘষুন কিছুক্ষণ। এরপর গোলাপজলে তুলা ভিজিয়ে চেপে নিন। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

কমলা ও কলার খোসা:


একটি বাতিতে ২ চা চামচ কলার খোসার পেস্ট ও ১ চা চামচ কমলার খোসার গুঁড়া মেশান। সামান্য দই দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন মিশ্রণটি। পরিষ্কার ত্বকে ফেসপ্যাকটি লাগান। ৩০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকের রোদে পোড়া দাগ দূর হবে।

Post A Comment: