চতুর্থবারের মতো জার্মানির চ্যাঞ্চেলর নির্বাচিত হয়েছেন অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। এখন তার দল রক্ষণশীল খ্রিস্টান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়নের (সিডিইউ) নেতৃত্বে একটি মহাজোট সরকারের নেতৃত্ব দেবেন তিনি।
 

চতুর্থবারের মতো জার্মানির চ্যাঞ্চেলর নির্বাচিত হয়েছেন অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। এখন তার দল রক্ষণশীল খ্রিস্টান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়নের (সিডিইউ) নেতৃত্বে একটি মহাজোট সরকারের নেতৃত্ব দেবেন তিনি।


জার্মান গণমাধ্যম ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে তার পক্ষে ৩৬৪ জন সদস্য ভোট দেন। আর তার বিপক্ষে ভোট দেন ৩১৫ জন। এ ছাড়া নয়জন ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকেন। আর ২১ জন সংসদ সদস্য ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছেন কিংবা উপস্থিত হননি।

এর মাধ্যমে ইউরোপের বৃহৎ অর্থনীতির এ দেশটিতে গত ছয় মাস ধরে চলা রাজনৈতিক অচলাবস্থার অবসান হলো। গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর নির্বাচন হলেও কোনো দলই একক সংখ্যাগরিষ্টতা না পাওয়ায় সরকার গঠন করা সম্ভব হয়নি।

তাছাড়া নির্বাচনের পর থেকে মার্কেল জোট গঠনের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। অবশেষে সোশ্যাল ডেমেক্রেটিক পার্টি (এসপিডি) মার্কেলের সিডিইউ ও সিএসইউ জোটের সঙ্গে সরকার গঠন করতে রাজি হয়।

উল্লেখ্য, জাতীয় নির্বাচনে মার্কেলের দল ৩৩ শতাংশ ভোট পায়। আর এসপিডি পায় ২০ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট। যদিও দুই দলের জন্যই তা আগের নির্বাচনের তুলনায় কম। এর কারণ চরম ডানপন্থী দল অল্টারনেটিভ ফর জার্মানি (এএফডি) গেল বছরের নির্বাচনে ১২ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট পায়।

Post A Comment: