স্বেচ্ছায় কুর্দি নারী বাহিনী ওয়াইপিজে-তে যোগ দিয়ে লড়াইয়ে অংশ গ্রহণ করা এক ব্রিটিশ নারী যোদ্ধা সিরিয়ায় নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।
 


 স্বেচ্ছায় কুর্দি নারী বাহিনী ওয়াইপিজে-তে যোগ দিয়ে লড়াইয়ে অংশ গ্রহণ করা এক ব্রিটিশ নারী যোদ্ধা সিরিয়ায় নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।


ওই নারী যোদ্ধার বাবা ডিক ক্যাম্বেল বলেছেন, তার মেয়ে অ্যানা (২৬) গত ১৫ই মার্চ আফরিনে মারা যান।

তুর্কি বাহিনী এখন সিরিয়ার শহর আফরিনের ওপর গোলাবর্ষণ করছে।

ক্যাম্বেল বলেন, অ্যানা 'খুবই আদর্শবাদী' এবং 'দৃঢ়চেতা' ছিল।

গত জানুয়ারি মাস থেকে তুর্কী বাহিনী সিরিয়ার ভূখণ্ডের ভেতরে ঢুকে কুর্দি গোষ্ঠীগুলোর ওপর হামলা চালাচ্ছে।

অ্যানা ক্যাম্বেল ২০১৭ সালের মে মাসে সিরিয়ায় গিয়ে ওয়াইপিজে-তে যোগদান করেন।
 


শুধুমাত্র নারী যোদ্ধাদের নিয়ে গঠিত ওয়াইপিজে সে সময় ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে লড়াই করছিল।

ব্রিটেনের পুলিশ এর আগে বার বার করে সিরিয়ায় যাওয়ার ঝুঁকি সম্পর্কে তার দেশের নাগরিকদের সতর্ক করেছে।

তারা বলেছে, যে কেউ কোনো পক্ষের হয়ে লড়াই করার জন্য সিরিয়ায় গেলে তার বিচার করা হবে।

বিবিসি জানতে পেরেছে, ক্যাম্বেল ওয়াইপিজের সাথে দেইর এজ-জোর অঞ্চলে আইএস-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশ নিয়েছিলেন।

আইএস-এর হাতে থাকা সর্বশেষ ঘাঁটিগুলির মধ্যে দেইর এজ-জোর একটি।
 


কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে তুরস্ক কুর্দি বাহিনীগুলোর বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযান শুরু করার পর কুর্দি যোদ্ধারা আইএস-এর বিরুদ্ধে লড়াই বন্ধ রাখে এবং আফরিনে সরে যায়।

কিছু ব্রিটিশ ভলান্টিয়ার যোদ্ধাও তাদের সাথে যোগ দেয়।

ক্যাম্বেল বিবিসিকে জানিয়েছেন, তার মেয়ের সহযোদ্ধারা অ্যানাকে আফরিনে যেতে বারণ করেছিলেন।

তাকে বলা হয়েছিল সোনালি চুল আর নীল চোখের কারণে তাকে সহজেই বিদেশি যোদ্ধা হিসেবে চিহ্নিত করা যাবে।

এজন্য অ্যানা তার চুলের রঙ বদলে কালো করে ফেলেছিলেন বলে তিনি বলেন।
তুরস্ক ওয়াইপিজে-কে নিষিদ্ধ ঘোষিত কুর্দি দল পিকেকে-র একটি শাখা বলে মনে করে।

এর আগে সিরিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমের আফরিন এলাকায় ইউরোপের দুটি দেশের দুই নাগরিক নিহত হয়েছেন। আফরিনে কুর্দি সংগঠন পিওয়াইডি/পিকেকের বিরুদ্ধে তুরস্কের অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ চলার সময় তারা নিহত হন।

সামাজিক মাধ্যমের তথ্য থেকে জানা যায়, আফরিনে তুরস্কের সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চলার সময় স্পেনের স্যামুয়েল প্রাডা লিওন (সাংকেতিক নাম বারান গালিসিয়া) এবং ফ্রান্সের অলিভিয়ের ফ্রাসোয়াঁ জঁ লে ক্লেইনশকে (সাংকেতিক নাম কেন্ডাল ব্রেইঝ) ‘নিষ্ক্রিয়’ করা হয়।


ইউরোপের বিভিন্ন দেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকরা পিওয়াইডি/পিওয়াইকেকের হয়ে লড়াই করছে।

তুরস্কের সংবাদ মাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, পশ্চিমা দেশগুলো দায়েশ (ইসলামিক স্টেট)-এ তাদের নাগরিককে যোগদান বন্ধ করতে বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে, কিন্তু তারা পিওয়াইকে/পিকেকে সংগঠনটিকে সন্ত্রাসী হিসেবে আখ্যায়িত করতে ব্যর্থ হয়েছে।

নেদারল্যান্ডের নাগরিক সোয়ের্ড হিগার (সাংকেতিক নাম বারান স্যাসন) সিরিয়ার দের আল-জর অঞ্চলে সিরিয়া ও ইরানের বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ের সময় নিহত হন।

আফরিন থেকে পিওয়াইডি/পিকেকের তথাকথিত সন্ত্রাসীদেরকে তাড়ানোর জন্য জানুয়ারির ২০ তারিখে অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ শুরু হয়।

তুরস্কের জেনারেল স্টাফ জানিয়েছে, দেশটির সীমান্তকে সুরক্ষিত করতে এবং সিরিয়াকে সন্ত্রাসিদের কবল থেকে বাঁচাতে এই অভিযান শুরু করেছে তারা।

এদিকে আফরিনে দখলদারিত্ব হারানোর কয়েক দিন আগে তুর্কি বাহিনী ও তাদের সমর্থিত বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এক মার্কিন যোদ্ধা নিহত হন বলে কুর্দিদের একাধিক টুইটে জানানো হয়। তার ছবিও শেয়ার দেয়া হয়।

Post A Comment: