ডেনমার্কের রানি দ্বিতীয় মার্গারেটের স্বামী প্রিন্স হেনরিক ৮৩ বছর বয়সে মঙ্গলবার রাতে মারা গেছেন বলে রয়েল হাউস এক বার্তায় জানিয়েছেন। খবর বিবিসির।
ডেনমার্কের প্রিন্স হেনরিকের ইন্তেকাল 

ডেনমার্কের রানি দ্বিতীয় মার্গারেটের স্বামী প্রিন্স হেনরিক ৮৩ বছর বয়সে মঙ্গলবার রাতে মারা গেছেন বলে রয়েল হাউস এক বার্তায় জানিয়েছেন। খবর বিবিসির।


কোপেনহেগেনে উত্তরে অবস্থিত ফ্রেডেনসবর্গ রাজপ্রাসাদে তিনি চিরনিদ্রায় শায়িত হন।এ সময়  তার পাশে স্ত্রী মার্গারেট এবং তার দুই সন্তান উপস্থিত ছিলেন।

গত মাসের শেষের দিকে তিনি ফুসফুসে সংক্রমণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। ২০১৭ সালে তার ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রংশ ধরা পড়ে।

জীবনে শেষ সময়টা কাটানোর জন্য ফ্রান্সের বংশোদ্ভূত প্রিন্স হেনরিককে ফ্রেডেনসবর্গ রাজপ্রাসাদে নিয়ে আসা হয়। সেখানেই তিনি ইন্তেকাল করেন।

১৯৬৭ সালে রাজকুমারী মার্গারেটের সঙ্গে প্রিন্স হেনরিকের বিয়ে হয়। ১৯৭২ সালে মার্গারেট রানি হন এবং হেনরিককে প্রিন্স অব ডেনমার্ক উপাধি দেয়া হয়। যদিও তিনি চেয়েছিলেন রাজা উপাধি। এ কারণে ব্যক্তিগত জীবনে খানিকটা অখুশি ছিলেন প্রিন্স হেনরিক।

ডেনমার্কের রাজকীয় ঐতিহ্য অনুযায়ী রাজা ও রানির মৃত্যুর পর ক্যাথেড্রালে তাদের সমাহিত করার কথা। কিন্তু প্রিন্স হেনরিক বিষয়টি নাকচ করে দিয়ে অন্য কোনো স্থানে সমাহিত হওয়ার ইচ্ছা জানান।

গত বছর প্রিন্স হেনরিক জানিয়েছিলেন, স্ত্রীর কবরের পাশে তিনি সমাহিত হতে চান না। কারণ তাকে পরিপূর্ণ মর্যাদা দেয়া হয়নি।

রানি মার্গারেট বলেছিলেন, তার স্বামীর সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দেয়া হোক।

এতে করে ডেনমার্কের রাজপরিবারের ৪৫৯ বছরের ঐতিহ্য ভঙ্গ হলো।

Post A Comment: