পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর উদ্যোক্তা পরিচালকরা (স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত) এককভাবে ২ শতাংশ শেয়ার ধারণে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।
 শেয়ার ধারণে ব্যর্থ পরিচালকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বিএসইসি

পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর উদ্যোক্তা পরিচালকরা (স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত) এককভাবে ২ শতাংশ শেয়ার ধারণে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।


এছাড়া তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর উদ্যোক্তা পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণের নির্দেশনা জারি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬২৯তম কমিশন সভায় চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেনের উপস্থিতিতে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

জানা যায়, পুঁজিবাজারে বর্তমানে ৩০২টি কোম্পানি তালিকাভুক্ত রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ২ শতাধিক উদ্যোক্তা পরিচালকের কাছে ন্যূনতম ২ শতাংশ শেয়ার নেই। পাশাপাশি তালিকাভুক্ত প্রায় ৪০টি কোম্পানির উদ্যোক্তা পরিচালকের কাছে সম্মিলিতভাবে ৩০ শতাংশ শেয়ার নেই।

বিএসইসি সূত্র জানায়, ২০১১ সালের ২২ নভেম্বর উদ্যোক্তা পরিচালকদের বিরুদ্ধে শেয়ার ধারণের বাধ্যবাধকতা দিয়ে প্রঞ্জাপন জারি করে বিএসইসি। কিন্তু এরপর প্রায় ৮ বছর অতিক্রান্ত হলেও কোনো কোম্পানি বিএসইসি’র নির্দেশনা পরিপালন করেনি।

তাই নতুন করে পুরনো নির্দেশনা পরিপালনের নির্দেশনা দিয়েছে সংস্থাটি। পাশাপাশি কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থাপনা গ্রহণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

মঙ্গলবার বিএসইসির কমিশন সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ২০১১ সালের ২২ নভেম্বরের বিধান মোতাবেক স্টক এক্সচেঞ্জ এ তালিকাভুক্ত কোম্পানিসমূহের স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত সকল পরিচালকের জন্য সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশ শেয়ার ধারণ বাধ্যতামূলক।

কাজেই স্টক এক্সচেঞ্জ এ তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর স্বতন্ত্র পরিচালক ব্যতীত যেসব পরিচালক কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ২ শতাংশ শেয়ার ধারণ না করে কোম্পানির পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন, তাদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিষয়টি এনফোর্সমেন্ট বিভাগে প্রেরণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এছাড়াও কমিশনের স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত যেসব কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকরা সম্মিলিতভাবে সর্বদা কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন, সেসব কোম্পানির স্পন্সর ও পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধনের ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণ অবিলম্বে নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে একটি নির্দেশনা জারির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

Post A Comment: