বাংলাদেশ ব্যাংক টাকা জাদুঘরে মুদ্রা সংগ্রাহকদের জন্য ২ টাকা, ৫ টাকা ও ৫০ টাকার নমুনা নোট বিক্রি শুরু হয়েছে। গত ২ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কারেন্সি ম্যানেজমেন্টের উপ-মহাব্যবস্থাপক আব্দুল মজিদ চৌধুরী, টাকা জাদুঘরের উপ-মহাব্যবস্থাপক রাজেন্দ্র লাল তালুকদার ও যুগ্ম-পরিচালক খন্দকার আনোয়ার শাহাদাৎ।
 

বাংলাদেশ ব্যাংক টাকা জাদুঘরে মুদ্রা সংগ্রাহকদের জন্য ২ টাকা, ৫ টাকা ও ৫০ টাকার নমুনা নোট বিক্রি শুরু হয়েছে। গত ২ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে এর উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কারেন্সি ম্যানেজমেন্টের উপ-মহাব্যবস্থাপক আব্দুল মজিদ চৌধুরী, টাকা জাদুঘরের উপ-মহাব্যবস্থাপক রাজেন্দ্র লাল তালুকদার ও যুগ্ম-পরিচালক খন্দকার আনোয়ার শাহাদাৎ।


বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ব্যাংক নোট সংগ্রাহকরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে তাদের কাক্সিক্ষত নমুনা নোটগুলো সংগ্রহ করে। সংগ্রাহকদের জন্য একই সঙ্গে ২০ টাকা, ১০০ টাকা, ৫০০ টাকা ও ১০০০ টাকার  নমুনা নোটও বিক্রি করা হচ্ছে। একজন সংগ্রাহক তিন সেট নোট সংগ্রহ করতে পারবেন। প্রতি নোট কিনতে নির্ধারিত মূল্যমানের চেয়ে তিনগুণ বেশি টাকা দিতে হবে। যদিও আন্তর্জাতিক বাজারে এই নমুনা নোটগুলোর মূল্য ১০০ গুণ বেশি। 



উদ্দেশ্য, ব্যাংক নোট সংগ্রাহকদের সংগ্রহশালা সমৃদ্ধশালী করা। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত টাকা জাদুঘরে সারা বাংলাদেশের সব ব্যাংক নোট সংগ্রাহকরা উপস্থিত হয়েছিলেন। তারা তাদের কাক্সিক্ষত নমুনা নোট পেয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার মধ্যে সাপ্তাহিক এই সময় পত্রিকা বিতরণ করা হয়। পাশাপাশি দর্শণার্থীদের দেশ-বিদেশের ব্যাংক নোট ও ধাতব মুদ্রা টাকা জাদুঘর ডোনার ক্লাবের পক্ষ থেকে উপহার দেওয়া হয়। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন টাকা জাদুঘর ডোনার ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রশিদ আলম। শনি থেকে বুধবার সকাল ১১ টাকা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত ও শুক্রবার দুপুর ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত টাকা জাদুঘর খোলা থাকে।

Post A Comment: