ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে আপনাকে যে শুধু দামি দামি কসমেটিক্স ব্যবহার করতে হবে এমন কোনো নিয়ম নেই। আবার আপনাকে বাড়িতে বসে বসে ত্বকে এই প্যাক, সে মাস্ক ব্যবহার করারও কোনো দরকার নেই। কী ভাবছেন? তাহলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে কীভাবে তাইতো? কোনো চিন্তা নেই এবার থেকে মজাদার সব জুস পান করবেন আর আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবেন। আসুন আজ আমরা জেনে নেই এমন কিছু জুসের কথা, যা পান করে আপনি স্বাস্থ্য সুবিধা তো পাবেনই সাথে পাবেন উজ্জ্বল ত্বক।
 

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে আপনাকে যে শুধু দামি দামি কসমেটিক্স ব্যবহার করতে হবে এমন কোনো নিয়ম নেই। আবার আপনাকে বাড়িতে বসে বসে ত্বকে এই প্যাক, সে মাস্ক ব্যবহার করারও কোনো দরকার নেই। কী ভাবছেন? তাহলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে কীভাবে তাইতো? কোনো চিন্তা নেই এবার থেকে মজাদার সব জুস পান করবেন আর আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবেন। আসুন আজ আমরা জেনে নেই এমন কিছু জুসের কথা, যা পান করে আপনি স্বাস্থ্য সুবিধা তো পাবেনই সাথে পাবেন উজ্জ্বল ত্বক।


আঙ্গুরের রস: আমাদের সবার প্রিয় আঙ্গুরের রসেও রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ব্রণ দূর করার পাশাপাশি ত্বক হতে বয়সের ছাপও দূর করে থাকে। ত্বকের ভেতর থেকে উজ্জ্বল করার জন্য আঙ্গুরের জুসের বিকল্প নেই।

পার্সলে পাতার জুস: পার্সলে একটি হার্ব যা যেকোন জুসের সাথে যোগ করা যায়। আবার আপনি চাইলে এর জুস করেও খেতে পারেন। পার্সলে পাতা আমাদের ত্বক পরিষ্কার করে যেকোনো ইনফেকশন থেকে ত্বককে রক্ষা করে। এতে রয়েছে ভিটামিন কে যা ত্বক ভেতর থেকে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

আপেল জুস: ত্বককে ভিতর থেকে উজ্জ্বল করার ক্ষেত্রে আপেলের জুসের তুলনা নেই। আপেলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহ রিঙ্কেল দূর করে ত্বকের বয়সের ছাপ দূর করে থাকে। এটি ত্বককে নরমও করে থাকে।

বীটের জুস: আয়রন, পটাশিয়াম, কপার, ভিটামিন সি এর দারুন সমন্বয় হল বীটের জুস। বীটের রসে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটোরি উপাদানা আছে যা আমাদের লিভার ভাল রাখার পাশাপাশি ত্বককে আরো স্বাস্থ্যকর ও উজ্জ্বল করে।

গাজরের রস: ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে গাজর অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। গাজরে আছে বিটা কেরোটিনা যা ত্বকের কোষের ক্ষয়তা দূর করে ত্বকের বয়সের ছাপ পড়া রোধ করে থাকে। ভিটামিন এ আমাদের শরীরের টিস্যু, চোখ, হাড়, দাঁত মজবুত করতে সাহায্য করে।

Post A Comment: