শৈত্যপ্রবাহের প্রভাবে ঘন কুয়াশা থাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সব ধরনের বিমান ওঠানামা প্রায় পাঁচ ঘণ্টা বন্ধ ছিল।সোমবার ভোর ছয়টার দিকে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ করে দেওয়া হয়। কুয়াশা কেটে গেলে বেলা ১১টা থেকে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু হয় বলে জানিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ।
কুয়াশায় শাহজালালে ৫ ঘণ্টা বন্ধ ফ্লাইট

    শৈত্যপ্রবাহের প্রভাবে ঘন কুয়াশা থাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সব ধরনের বিমান ওঠানামা প্রায় পাঁচ ঘণ্টা বন্ধ ছিল।সোমবার ভোর ছয়টার দিকে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ করে দেওয়া হয়। কুয়াশা কেটে গেলে বেলা ১১টা থেকে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু হয় বলে জানিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ।


বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জনসংযোগ কর্মকর্তা রেজাউল করিম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘কুয়াশায় কাছের কিছু জিনিসও দেখা যাচ্ছিল না। দৃষ্টিসীমা শূন্যে নেমে আসে। ফলে ভোর ছয়টার পর থেকে আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে সব ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়। এ সময় তিন-চারটি ফ্লাইট ডাইভার্টেড হয়ে চট্টগ্রাম চলে যায়।’

তবে কুয়াশা কেটে যাওয়ার পর বেলা ১১টা থেকে বিমান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সারাদেশেই বিগত কয়েক দিন ধরে ঘন কুয়াশা পড়ছে। সোমবার ভোর ছয়টা থেকে ঢাকায় দৃষ্টিসীমা ছিল ৮০০ মিটার।

দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সকালে ছিল কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলায়, ৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০ দশমিক ৬।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, টাঙ্গাইল, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, যশোর ও কুষ্টিয়া অঞ্চলসহ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। বিরাজমান শৈত্যপ্রবাহ পরিস্থিতি দেশের আরো কিছু এলাকা থেকে প্রশমিত হতে পারে।

এছাড়া সোমবার মধ্যরাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত সারাদেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে এবং তা কোথাও কোথাও দিনের বেলা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

Post A Comment: