হস্তান্তরের শর্ত ভঙ্গ কারায় বেসরকারি মালিকানাধিন সুলতানা জুট মিলটি পুন:গ্রহণ (টেকব্যাক) করেছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার এক প্রজ্ঞাপনে সম্পাদিত মিল হস্তান্তর ত্রিপক্ষীয় চুক্তি বাতিল করা হয়। এর ফলে এখন আর মিলটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় থাকলো না।
শর্ত ভঙ্গ করায় ‘সুলতানা জুট মিলস্’ টেকব্যাক করল সরকার 

হস্তান্তরের শর্ত ভঙ্গ কারায় বেসরকারি মালিকানাধিন সুলতানা জুট মিলটি পুন:গ্রহণ (টেকব্যাক) করেছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। গত বৃহস্পতিবার এক প্রজ্ঞাপনে সম্পাদিত মিল হস্তান্তর ত্রিপক্ষীয় চুক্তি বাতিল করা হয়। এর ফলে এখন আর মিলটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় থাকলো না।


মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, ১৯৮২ সালের ৩০ নভেম্বর শিল্পনীতির শর্তসমূহ প্রতিপালন করে সরকার সুলতানা জুট মিলটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ছেড়ে দেয়।

এ উপলক্ষে মিলটির ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা বেসরকারি কর্তৃপক্ষের সাথে সরকার, বিজেএমসি ও মিল কর্তৃপক্ষের মধ্যে একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

মিল গ্রহীতারা মিলের বিপরীতে সরকার ও সরকারের আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের যাবতীয় দেনা পরিশোধ করার প্রতিশ্রুতি প্রদান করে। কিন্তু মিল কর্তৃপক্ষ সরকার, বিজেএমসি ও অন্যান্য সরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের পাওনা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হয়।

পরবর্তী সময়ে মিল ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে মিলের নিকট সরকারের পাওনা পরিশোধের জন্য গত ১২.০৭.১৯৯৫, ০৭.১২.১৯৯৬, ০৮.১২.১৯৯৭, ০৫.০১.২০০২ এবং সর্বশেষ ১৪.১২.২০১৬ তারিখে তাগিদপত্র প্রদান করা শর্ সরকারি পাওনা পরিশোধ করেনি।

উল্টো মিলটি চালু না করে মিলের যাবতীয় মেশিনারিজ তুলে একপাশে স্তুপ করে ফেলে রাখে। দীর্ঘদিন মিল বন্ধ রেখে হাজার-হাজার শ্রমিক-কর্মচারীকে তাদের কর্মসংস্থান হতে বঞ্চিত করে রেখেছে। এতে মিল হস্তান্তরের উদ্দেশ্য ব্যাহত হয়েছে এবং হস্তান্তর চুক্তি লঙ্ঘিত হয়েছে।

তাই জনস্বার্থে Contract Act 1872 (IX of 1872)এর ৩৯নং ধারা অনুযায়ী ৩০ নভেম্বর, ১৯৮২ খ্রিস্টাব্দ তারিখে সম্পাদিত মিল হস্তান্তর ত্রিপক্ষীয় চুক্তি বৃহস্পতিবার বাতিল করা হয়। ফলে এখন আর মিলটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় থাকলো না।

মিলটি সে সময় কত টাকায় বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে  বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা সৈকত চন্দ্র হালদার বলেন, টাকার অংকের কথা আমার জানা নেই। মিলটির বিপরীতে ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ সরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ গ্রহণ করেছে কিনা তাও পরে জানানো যাবে বলে জানান মন্ত্রণালয়ের এ কর্মকর্তা।

চট্টগ্রামের সীতাকুন্ড বাশবাড়িয়ায় সুলতানা জুট মিলস্ লি: এর যাবতীয় শেয়ার, স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ও স্বত্বও  ফিরে নিয়েছে সরকার। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত মিলটি ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব এ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন রাষ্ট্রায়ত্ব সংস্থা বিজেএমসি’র নিয়ন্ত্রণে ন্যস্ত থাকবে বলে জানায় মন্ত্রণালয় সূত্র।

প্রসঙ্গত, হস্তান্তরের চুক্তির শর্ত ভঙ্গ কারায় এবং মিলের উৎপাদন বন্ধ রাখায় সুলতানা জুট মিলস্ লি: নিয়ে এ পর্যন্ত ১২টি মিল  পুন:গ্রহণ (টেকব্যাক) করল বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ৫টি পাটকল এবং ৭টি বস্ত্রকল রয়েছে।

Post A Comment: