পার্বত্য চট্টগ্রামে পূর্ণস্বায়ত্তশাসন আন্দোলনের ১৯ বছরের মাথায় ভাঙনের মুখে পড়েছে পাহাড়ি রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)। বুধবার সকালে জেলা সদরের খাগড়াপুর কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে ‘ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক)’ নামে নতুন দলের আত্মপ্রকাশ ঘোষণা করা হয়। এর মধ্য দিয়ে প্রসিত বিকাশ খীসার নেতৃত্বাধীন এই পাহাড়ি রাজনৈতিক দলটি ভাঙনের মুখে পড়ল।
UPDF-broken-new-team-with-the-same-name 

পার্বত্য চট্টগ্রামে পূর্ণস্বায়ত্তশাসন আন্দোলনের ১৯ বছরের মাথায় ভাঙনের মুখে পড়েছে পাহাড়ি রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)। বুধবার সকালে জেলা সদরের খাগড়াপুর কমিউনিটি সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে ‘ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক)’ নামে নতুন দলের আত্মপ্রকাশ ঘোষণা করা হয়। এর মধ্য দিয়ে প্রসিত বিকাশ খীসার নেতৃত্বাধীন এই পাহাড়ি রাজনৈতিক দলটি ভাঙনের মুখে পড়ল।


সংবাদ সম্মেলন থেকে ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) এর সাত সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়। নতুন কমিটির আহ্বায়ক তপন জ্যোতি চাকমা (বর্মা) আর সদস্য সচিব জলেয়া চাকমা তরু।

এতে অভিযোগ করা হয়, ইউপিডিএফ-এর বর্তমান নেতৃত্ব সম্পূর্ণ অগণতান্ত্রিক। গঠনতন্ত্রে নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও দলটির বর্তমান নেতারা বলপ্রয়োগ, চাঁদাবাজি ও গুম-খুনের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন। গত ২০১৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত অন্তত ১০ জনের বেশি নেতাকে হত্যা করেছেন।

ইউপিডিএফ-এর এমন অগণতান্ত্রিক রাজনীতির কারণে সঞ্চয়, দিপ্তী শংকরসহ অসংখ্য নেতাকর্মী দল ত্যাগ করেছেন বলেও অভিযোগ করেন নতুন কমিটির নেতারা। এমন নাজুক অবস্থা বিবেচনায় ইউপিডিএফ-এর নতুন কমিটি ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছেন বলে জানান তারা।

উল্লেখ্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির বিরোধিতা করে এবং জনসংহতি সমিতির শীর্ষ নেতা জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমার (সন্তু লারমা) নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করে ১৯৯৮ সালে ২৬ ডিসেম্বর ইউপিডিএফ গঠন করা হয়েছিল।

এদিকে মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্বৃত্ত প্রতিরোধ কমিটির ব্যানারে ইউপিডিএফ-এর পুরনো অংশ সকালে খাগড়াছড়িতে লাঠিমিছিল বের করে। স্বনির্ভর এলাকায় লাঠিমিছিল থেকে বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ি জেলায় সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ আহ্বান করা হয়।

Post A Comment: