আফ্রিকার দারিদ্র্যপীড়িত দেশ জিম্বাবুয়ে ক্ষমতা গ্রহণ করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। একইসঙ্গে দীর্ঘদিনের একনায়ক রবার্ট মুগাবেকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে গৃহবন্দি বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা। খবর: বিবিসি। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের কার্যালয় জানায়, জ্যাকব জুমার সঙ্গে ফোনে কথা বলেন রবার্ট মুগাবে। তিনি ভালো আছেন বলে জ্যাকব জুমাকে জানান।
জিম্বাবুয়ে ক্ষমতায় সেনাবাহিনী, মুগাবে গৃহবন্দি 

আফ্রিকার দারিদ্র্যপীড়িত দেশ জিম্বাবুয়ে ক্ষমতা গ্রহণ করেছে দেশটির সেনাবাহিনী। একইসঙ্গে দীর্ঘদিনের একনায়ক রবার্ট মুগাবেকে গৃহবন্দি করা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে গৃহবন্দি বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা। খবর: বিবিসি। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের কার্যালয় জানায়, জ্যাকব জুমার সঙ্গে ফোনে কথা বলেন রবার্ট মুগাবে। তিনি ভালো আছেন বলে জ্যাকব জুমাকে জানান।


জিম্বাবুয়ের রাজধানী হারারের রাস্তায় টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী। এর আগে প্রধান প্রধান সরকারি দপ্তরগুলো ঘিরে অবস্থান নেয় সেনাবাহিনীর সাঁজোয়া যান।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন দখলে নিয়ে সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র বলেন, তারা ‘অপরাধীদের’ ধরতে অভিযানে নেমেছেন। শিগগিরই পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসবে।

ধারণা করা হচ্ছে, রবার্ট মুগাবের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন তারই বহিষ্কৃত ডেপুটি এমারসন নানগাগওয়া। দেশটির স্বাধীনতাযুদ্ধের অন্যতম এই ব্যক্তিত্বের সঙ্গে বর্তমান সেনাপ্রধানের সুসম্পর্ক আছে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

সেনাবাহিনী দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর রাজধানী হারারের উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক বন্দুকযুদ্ধ ও গোলাবর্ষণের ঘটনা ঘটে। তবে এর বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

জিম্বাবুয়ে ১৯৮০ সালে ব্রিটেন থেকে স্বাধীনতা অর্জনের পর থেকেই দেশটি শাসন করে আসছেন রবার্ট মুগাবে (৯৩)। গত সপ্তাহে এমারসনকে বহিষ্কার করলে দ্রুত দৃশ্যপট পরিবর্তন হতে থাকে। স্ত্রী গ্রেস মুগাবেকে প্রেসিডেন্ট করতেই মুগাবে এমন পদক্ষেপ নিয়েছিলেন বলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

Post A Comment: