লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরফলোয়ান এলাকায় সুপারি চুরির অপবাদে ৫ম শ্রেণির স্কুলছাত্র শাওনকে খুঁটির সাথে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। ওই নির্যাতনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় নির্যাতনকারীরা।
Torture-to-the-schoolgirl-on-the-charge-of-robbery-in-Laxmipur 

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরফলোয়ান এলাকায় সুপারি চুরির অপবাদে ৫ম শ্রেণির স্কুলছাত্র শাওনকে খুঁটির সাথে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। ওই নির্যাতনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় নির্যাতনকারীরা।


ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার দুপুরে চরফলোয়ান এলাকায়।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত এমরান হোসেনকে ওই এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সোমবার সকালে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

নির্যাতনের শিকার শাওন স্থানীয় চর ফলোয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র ও একই এলাকার মৃত মনছুর আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রায়পুর উপজেলার চর ফলোয়ান এলাকার মনছুর মিয়ার পরিবারের সঙ্গে একই এলাকার নুর মোহাম্মদের জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। শনিবার সকালে ওই সম্পত্তি থেকে সুপারি পাড়ে শিশু শাওন। এর জের ধরে বিকালে সুপারি চুরির অপবাধ দিয়ে শাওনকে ধরে নিয়ে যায় বাগান ইজারাদার এমরান হোসেন। পরে খুঁটির সাথে বেঁধে নির্যাতন চালানো হয়। খবর পেয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে।

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, অভিযুক্ত এমরান হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১ নভেম্বর সন্ধ্যায় একই উপজেলার বামনী ইউনিয়নে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে চার বছরের শিশু পিয়াসকে বস্তায় ভরে নির্যাতন করা হয়।

Post A Comment: