আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের ব্যাপারে মতামত দেয়ার মতো সময় বা কথা বলার মতো ক্ষেত্র এখনো তৈরি হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম।
‘সেনা মোতায়েন নিয়ে বলার সময় এখনো হয়নি’ 

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের ব্যাপারে মতামত দেয়ার মতো সময় বা কথা বলার মতো ক্ষেত্র এখনো তৈরি হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম।


মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর সিটি করপোরেশন এলাকার স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এই মন্তব্য করেন।

নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘এখন যে সিটি নির্বাচনগুলো হচ্ছে সেখানে সেনা মোতায়েনের বিষয়টি নেই। এর আগেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তায় এভাবে সিটি নির্বাচন হয়েছে। পরবর্তী সংসদ নির্বাচনের এখনো অনেক সময় আছে, এখনই এ বিষয়ে মতামত দেয়া বা কথা বলার ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে বলে আমি মনে করি না।’

কবিতা বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনে পল্লী অঞ্চলের আসন না কমিয়ে জনসংখ্যার ভিত্তিতে আসনের সীমানা নির্ধারণের বিষয়ে কমিশনের কাজ চলছে।’

শহরের বঙ্গতাজ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে ঢাকা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মন্ডলের সভাপতিত্বে নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, গাজীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আখতারউজ্জামান, জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র বিষয়ক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম।

বক্তারা জানান, গাজীপুর সিটি করপোরেশন এলাকার বাসিন্দাদের প্রায় ১১ লাখ ৮০ হাজার স্মার্ট কার্ড বিতরণের জন্য তৈরি হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা, কর্মকর্তা, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ১৩ জনের হাতে স্মার্ট কার্ড তুলে দেয়া হয়।

Post A Comment: