ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের মাদারগঞ্জ গ্রামে অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে প্রায় ৩৫টি ঘর। এতে প্রায় দশ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
 Thakurgaon-35-houses-burnt-ash

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের মাদারগঞ্জ গ্রামে অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে প্রায় ৩৫টি ঘর। এতে প্রায় দশ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


মঙ্গলবার রাত ২টায় মাদারগঞ্জ গ্রামের আজিজুলের রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। পরে ঠাকুরগাঁও সদর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মফিদার ইসলামের নেতৃত্বে একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরিবারের সদস্যরা স্ত্রী শিশু সন্তান নিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসে রয়েছে। ঘরের আসবাবপত্র, চাল-ডাল, কাপড়-চোপড় কোনো কিছু রক্ষা করতে না পাড়ায় ক্ষতিগ্রস্তদের কান্নায় আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে আউলিয়াপুর ইউনিয়নের মাদারগঞ্জ গ্রামে। অগ্নিকাণ্ডে মারা যায় অনেক হাস-মুরগি ও মালামালের সঙ্গে পুড়ে যায় শিক্ষার্থীদের বইখাতাও। 

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানান, মধ্যরাতে একটি রান্নাঘর থেকে আগুন জ্বলে উঠে। মুহূর্তের মধ্যে আশেপাশের ঘরবাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়লে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। হাস-মুরগি ও জমানো ফসল হারিয়ে দিশেহারা ক্ষতিগ্রস্তরা। তাই সরকারি সহায়তা ও দ্রুত পুনর্বাসন চান তারা। পরে ফায়ার সার্ভিস এসেও কিছুই রক্ষা করতে পারেনি বলে তারা জানান।

আউলিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জাফরুল্লাহ বলেন, ২০টি পরিবারের প্রায় ৩৫টি ঘর-বাড়ি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ দশ লক্ষাধিক টাকা ছাড়িয়ে গেছে। খোলা আকাশের নিচে পরিবারের সদস্যরা রয়েছে। দ্রুত সরকারি সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসলাম মোল্লা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন।

Post A Comment: