গাজীরের টঙ্গীর তুরাগ তীরে ১৭ নভেম্বর (শুক্রবার) বাদ ফজর আময়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হবে ৫ দিনের জোড় ইজতেমা। প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার আগে ৫ দিন এ জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়।
Started-on-17th-November-in-Turag-Shore-Jod-Ijtema 

গাজীরের টঙ্গীর তুরাগ তীরে ১৭ নভেম্বর (শুক্রবার) বাদ ফজর আময়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হবে ৫ দিনের জোড় ইজতেমা। প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার আগে ৫ দিন এ জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়।


২১ নভেম্বর (মঙ্গলবার) মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হবে জোড় ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বী গিয়াস উদ্দিন জানান, বিশ্ব ইজতেমা সুন্দর ও সফলভাবে শেষ করার জন্য প্রতি বছর টঙ্গীর তুরাগ তীরে ৫ দিনের জোড় ইজতেমার আয়োজন করা হয়। এবার জোড় ইজতেমায় দেশের ৬৪ টি জেলা থেকে আড়াই লাখ থেকে তিন লাখ মুসল্লী অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে।

তিনি জানান, কালেমা, নামাজ, ঈমান-আমল, জান্নাত-জাহান্নাম ও তাবলিগের উদ্দেশ্য ও মেহনত সম্পর্কে এ জোড় ইজতেমায় মুরুব্বীরা দাওয়াতের মাধ্যমে মৌলিক বিষয়াদির উপর বয়ান করবেন। বিভিন্ন মেয়াদে চিল্লাধারী মুসল্লীরা এ জোড় ইজতেমায় অংশ নেন। জোড় ইজতেমা শেষে মুসল্লীরা বিভিন্ন এলাকায় তাবলীগী কাজে ছড়িয়ে পড়েন।

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও টঙ্গী সার্কেল) সাখাওয়াত হোসেন জানান, টঙ্গীর তুরাগ তীরে সুষ্ঠুভাবে জোড় ইজতেমা শেষ করতে এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মুসল্লীদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবে।

২০১৮ সালের বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে জানুয়ারি মাসে। সে হিসাবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব ১২, ১৩ ও ১৪ এবং দ্বিতীয় পর্ব ১৯, ২০ ও ২১ জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি পর্ব ইজতেমার শেষে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।

Post A Comment: