রাঙামাটির রাজবন বিহারে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান কঠিন চীবর দানোৎসব। এ দিন দুপুর ১টায় পঞ্চশীল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হবে বৌদ্ধদের এ মহাপুণ্যাযজ্ঞ।
Rangamati-solid-chibara-banadosabha-begins-on-Thursday 

রাঙামাটির রাজবন বিহারে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান কঠিন চীবর দানোৎসব। এ দিন দুপুর ১টায় পঞ্চশীল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হবে বৌদ্ধদের এ মহাপুণ্যাযজ্ঞ।



রাঙামাটি রাজবন বিহার সূত্রে জানা যায়, মহামতি গৌতম বুদ্ধের জীবদ্দশায় তার প্রধান সেবিকা মহাপুণ্যবতী বিশাখা প্রবর্তিত নিয়মে রাজবন বিহারে এবার ৪৪তম কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বুধবার সকালে উৎসবে যোগ দিতে রাজবন বিহারে থেকে অগণিত পুন্যার্থীর ঢল নামতে শুরু করেছে। 



রাজবন বিহারে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের বড় ধর্মীয় উৎসব কঠিন চীবর দানোৎসবকে ঘিরে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছে পুরো রাঙামাটি শহর। উৎসব ঘিরে রাজবন বিহার এলাকায় বসছে মেলা। ধর্মীয় কীর্তন, নাটক, চরকায় সুতা কাটা, বেইন বোনা, কল্পতরু শোভাযাাত্রাসহ চলছে বর্ণাঢ্য নানা আয়োজন।


রাঙামাটি রাজবন বিহার উপাসক-উপাসিকা পরিষদের সভাপতি গৌতম দেওয়ান জানান, রাঙামাটি রাজ বন বিহার উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে সব প্রস্তুতি। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় পঞ্চশীল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শুরু হবে দু’দিনের আনুষ্ঠানিকতা। বিকেল ৩টায় চরকায় সুতা কাটার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে চীবর (বৌদ্ধ ভিক্ষুদের ব্যবহার্য বস্ত্র) তৈরি করে দানীয় উৎসবের।

রাজবন বিহারের প্রধান পৃষ্ঠপোষক চাকমা সার্কেল চিফ রাজা ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায় ও রানী ইয়েন ইয়েন রায় চরকায় সুতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন বেইন বোনা।

রাজবন বিহার উপাসক-উপাসিকা পরিষদের তথ্য ও প্রচার কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট সুস্মিতা চাকমা জানান, এবার অনুষ্ঠানে রাজবন বিহারসহ দেশ-বিদেশের বৌদ্ধ ভিক্ষু যোগ দেবেন। বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি রাজবন বিহারসহ শাখা বন বিহারগুলো ছাড়া বিশ্বে কোথাও বিশাখা প্রবর্তিত নিয়মে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের কঠিন চীবর দানোৎসবের আয়োজন হয় না।

Post A Comment: