মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। ঢাকায় নেমে বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া চারটার দিকে তিনি সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে এ শ্রদ্ধা জানান। এর আগে তিন দিনের সফরে বিকেল তিনটার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান রোমান ক্যাথলিকদের প্রধান ধর্মগুরু। এ সময় বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ২১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে পোপকে স্বাগত জানানো হয়। এ সময় তাকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়।
Popes-respect-to-martyrs-at-the-memorial 

মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। ঢাকায় নেমে বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া চারটার দিকে তিনি সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে এ শ্রদ্ধা জানান। এর আগে তিন দিনের সফরে বিকেল তিনটার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান রোমান ক্যাথলিকদের প্রধান ধর্মগুরু। এ সময় বিমানবন্দরে তাকে অভ্যর্থনা জানান রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ২১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে পোপকে স্বাগত জানানো হয়। এ সময় তাকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়।


পোপ ফ্রান্সিস বিশ্বের এক দশমিক ২ বিলিয়ন রোমান ক্যাথলিকদের নেতা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ক্যাথলিক বিশপ কনফারেন্স অব বাংলাদেশের আমন্ত্রণে তিনি ঢাকায় এসেছেন। আগামী ২ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় তিনি রোমে ফিরে যাবেন।

এবার নিয়ে বাংলাদেশের মাটিতে তৃতীয় পোপের আগমন ঘটল। আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৮৬ সালের ১৯ নভেম্বর পোপ দ্বিতীয় জন পল বাংলাদেশে এসেছিলেন। এর আগে ১৯৭০ সালের ২৭ নভেম্বর পোপ ষষ্ঠ পল বাংলাদেশে এক ঘণ্টার যাত্রাবিরতি নিয়েছিলেন।

এদিকে, পোপের বাংলাদেশ সফর ঘিরে কাকরাইল চার্চে চলছে মঞ্চ বানানো, বাগান সাজানো, গেইট সাজানো ও দেয়ালে রঙের কাজ। রাতে তিনি থাকবেন ভ্যাটিকান দূতাবাসে।

এছাড়া রাত আটটার দিকে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সুশীল সমাজ ও কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন পোপ।

আগামীকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পোপ বক্তব্য রাখবেন। এরপর বিকেল তিনটার দিকে ভ্যাটিকান দূতাবাসে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

পরের দিন শনিবার সকাল ১০টার দিকে তেজগাঁও মাদার তেরেসা ভবনে ব্যক্তিগত পরিদর্শন করবেন। বিকেল তিনটায় নটরডেম কলেজে যুব সমাবেশে বক্তব্য রাখেবেন তিনি। ওইদিন সন্ধ্যা পাঁচটার দিকে রোমের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন পোপ।

Post A Comment: