রাঙামাটি রাজবন বিহারে ৪৪তম দুই দিনব্যাপী কঠিন চীবর দান উৎসব বৃহস্পতিবার বিকালে শুরু হয়েছে। ২৪ ঘন্টার মধ্যে তুলা থেকে সুতা তৈরি এরপর কোমর তাঁতের মাধ্যমে তৈরি চীবর শুক্রবার দান করা হবে।
In-Rajban-Bihar-the-two-day-long-cigarette-began 

রাঙামাটি রাজবন বিহারে ৪৪তম দুই দিনব্যাপী কঠিন চীবর দান উৎসব বৃহস্পতিবার বিকালে শুরু হয়েছে।  ২৪ ঘন্টার মধ্যে তুলা থেকে সুতা তৈরি এরপর কোমর তাঁতের মাধ্যমে তৈরি চীবর শুক্রবার দান করা হবে।


বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে তিনটায় বৌদ্ধ সাধকদের কাছ থেকে পঞ্চলীল গ্রহণের পর চাকমা সার্কেল চিফ ব্যারিস্টার দেবাশীষ রাঙামাটি রাজবন বিহারের বেইন ঘরে ফিতা কেটে বেইন ঘরের উদ্বোধন করেন। এরপর চড়কায় তুলা থেকে সুতা কেটে বেইন বুনন কাজের উদ্বোধন করেন চাকমা রাণী য়েন য়েন। এ সময় লাখো পূণ্যার্থীর সাধুবাদে মুখরিত রাজবন বিহার এলাকা।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বৌদ্ধ তীর্থে এ ধর্মীয় উৎসবে যোগ দিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে লাখো মানুষ ভিড় করেছেন রাঙামাটিতে। এদের নিরাপত্তা দিতে শুধু বন বিহার এলাকায় মোতায়ন করা হয়েছে ৬শ পুলিশ সদস্য।

রাঙামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহাঙ্গীর বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুকে কেন্দ্র করে পাহাড়ে কেউ যেন সম্প্রীতি নষ্ট করতে না পারে সেজন্য এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় বন বিহার এলাকা মনিটরিং করা হচ্ছে। পোশাকের পাশাপাশি সাদা পোশাকের পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে।

তথাগত গৌতম বুদ্ধের সময় বিশাখা নামে এক পূণ্যবতী প্রবর্তিত রীতি অনুযায়ী দুদিন ব্যাপী এই ধর্মীয় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। তুলা থেকে সুতা তৈরিসহ বুনন কাজের সকল প্রক্রিয়ার শেষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের পরিধেয় চীবর কোমর তাদের মাধ্যমে তৈরি করে শুক্রবার ভিক্ষুসংঘের উদ্দেশ্যে দান করা হবে। পূণ্যার্থীদের বিশ্বাস এ পূণ্য কাজের প্রভাবে মৃত্যুর পরে নির্বাণগামী হওয়া যায়। ২৪ ঘন্টার মধ্যে তৈরি চীবর শুক্রবার রাজবন বিহার অধ্যক্ষের হাতে দান করা হবে।

Post A Comment: