সারাদেশের পৌরসভায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা সরকারী কোষাগার থেকে প্রদানের দাবিতে কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে সোমবার বগুড়া পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণও সকাল নয়টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করেছেন।।
 

সারাদেশের পৌরসভায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা সরকারী কোষাগার থেকে প্রদানের দাবিতে কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে সোমবার বগুড়া পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণও সকাল নয়টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করেছেন।।


বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশন বগুড়া জেলার সভাপতি আহমেদ কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী বিভাগীয় পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো: আল মেহেদী হাসান, বগুড়া পৌরসভার সচিব মো: ইমরোজ মুজিব, নির্বাহী প্রকৌশলী মো: নজরুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী আবু জাফর মো: রেজা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ, হিসাব রক্ষক দেওয়ান আহসানুর রাশেদ, স্যানিটারী ইন্সপেক্টার মো: শাহ আলী খান, বগুড়া পৌর কর্মচারী সংসদের সভাপতি এ কে এম আকিল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক জীবন কৃষ্ণ যাদব।

সমাবেশে বক্তারা স্থানীয় সরকার বিভাগের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাও সরকারী কোষাগার থেকে দেয়ার দাবী জানান।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সারা দেশের বিভিন্ন পৌরসভায় ৫ মাস থেকে ৫০ মাস পর্যন্ত বেতন-ভাতা বকেয়া আছে, অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও পৌরসভার আর্থিক দূরাবস্থার কারনে অবসরকালীন পাওনাদি পাচ্ছেন না। ফলে, অর্থের অভাবে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ পরিবারসহ অর্ধাহারে-অনাহারে জীবনযাপন করছেন।

 
সারাদেশের পৌরসভায় কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা সরকারী কোষাগার থেকে প্রদানের দাবিতে কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে সোমবার বগুড়া পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণও সকাল নয়টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করেছেন।।

বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশন বগুড়া জেলার সভাপতি আহমেদ কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী বিভাগীয় পৌরসভা সার্ভিস এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো: আল মেহেদী হাসান, বগুড়া পৌরসভার সচিব মো: ইমরোজ মুজিব, নির্বাহী প্রকৌশলী মো: নজরুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী আবু জাফর মো: রেজা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ, হিসাব রক্ষক দেওয়ান আহসানুর রাশেদ, স্যানিটারী ইন্সপেক্টার মো: শাহ আলী খান, বগুড়া পৌর কর্মচারী সংসদের সভাপতি এ কে এম আকিল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক জীবন কৃষ্ণ যাদব।

সমাবেশে বক্তারা স্থানীয় সরকার বিভাগের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতাও সরকারী কোষাগার থেকে দেয়ার দাবী জানান।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সারা দেশের বিভিন্ন পৌরসভায় ৫ মাস থেকে ৫০ মাস পর্যন্ত বেতন-ভাতা বকেয়া আছে, অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও পৌরসভার আর্থিক দূরাবস্থার কারনে অবসরকালীন পাওনাদি পাচ্ছেন না। ফলে, অর্থের অভাবে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ পরিবারসহ অর্ধাহারে-অনাহারে জীবনযাপন করছেন।

Post A Comment: