মিয়নামারের সেনাবাহিনীর নির্যাতন ও গণহত্যার মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে মিয়ানমারের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে এমন চারটি দেশের সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ সরকার। বুধবার দুপুরে ঢাকার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ভারত, চীন, থাইল্যান্ড ও লাওসের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে এ সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। বৈঠকে রোহিঙ্গাদের ফেরানোর প্রশ্নে বাংলাদেশের দ্বিপক্ষীয় এবং বহুপক্ষীয় উদ্যোগের বিস্তারিত অবহিত করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।
 

মিয়নামারের সেনাবাহিনীর নির্যাতন ও গণহত্যার মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে মিয়ানমারের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে এমন চারটি দেশের সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ সরকার। বুধবার দুপুরে ঢাকার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ভারত, চীন, থাইল্যান্ড ও লাওসের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে এ সহায়তা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। বৈঠকে রোহিঙ্গাদের ফেরানোর প্রশ্নে বাংলাদেশের দ্বিপক্ষীয় এবং বহুপক্ষীয় উদ্যোগের বিস্তারিত অবহিত করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।


রোহিঙ্গা বোঝা লাঘবে বিশেষ করে ১০ লাখের বেশি মিয়ানমার নাগরিকের অস্থায়ী আশ্রয় গ্রহণে বাংলাদেশ যে গভীর সঙ্কটে পড়েছে তার বিস্তারিত তুলে ধরেন তিনি।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, মিয়ানমারের সীমান্ত লাগোয়া ওই চার দেশের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের অবস্থানের বিষয়টি তাদের দেশে জানাবেন বলে অঙ্গীকার করেছেন। তবে তাদের তরফে এই ইস্যুতে কি সহায়তা দেয়া হবে তা স্পষ্ট করে বলেন নি।

বৈঠকে ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, চীনের রাষ্ট্রদূত মা মিং কিয়াংসহ উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Post A Comment: