বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের দ্রুত মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো প্রয়োজন বলে মনে করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের জায়গা দিতে গিয়ে বাংলাদেশ পরিবেশগত, স্বাস্থ্যগত, শিক্ষাগত ঝুঁকিতে আছে। রোহিঙ্গা যুবকদের সন্ত্রাসী কর্মকা-ের প্রবণতা বাড়ছে। তাই রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত পাঠাতে হবে।
Bangladesh-at-risk-for-Rohingyas-send-them-fast 

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের দ্রুত মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো প্রয়োজন বলে মনে করেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের জায়গা দিতে গিয়ে বাংলাদেশ পরিবেশগত, স্বাস্থ্যগত, শিক্ষাগত ঝুঁকিতে আছে। রোহিঙ্গা যুবকদের সন্ত্রাসী কর্মকা-ের প্রবণতা বাড়ছে। তাই রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত পাঠাতে হবে।


বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজশাহীতে রোহিঙ্গা গণহত্যাকারীদের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির তিনি এসব কথা বলেন। নগরীর মিয়াপাড়ার সাধারণ গ্রন্থাগারে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী মহানগর শাখা এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

শাহরিয়ার কবির বলেন, রোহিঙ্গা গণহত্যায় জড়িত মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্যদের আন্তর্জাতিক আদালতের (আইসিসি) মাধ্যমে বিচার করতে হবে। আমরা ভুক্তভোগী রোহিঙ্গাদের স্বাক্ষর নিচ্ছি। এর মাধ্যমে আইসিসিতে মামলা করা হবে। একবার আইসিসির রায় হয়ে গেলে জাতিসংঘের জন্য তা অবশ্য পালনীয় হয়ে যাবে। জাতিসংঘ তখন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবে।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের নিয়ে জামায়াত-বিএনপি ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করে শাহরিয়ার কবির বলেন, রোহিঙ্গাদের কাছে সরকারের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে জামায়াত-বিএনপি। তারা ক্ষমতায় এলে রোহিঙ্গাদের আরও ভালোভাবে রাখবে, এমন লোভও দেখাচ্ছে। এমনকি, জামায়াতের বিভিন্ন এনজিও রোহিঙ্গা যুবকদের জঙ্গিবাদে ঠেলে দিচ্ছে।

ভাষা সৈনিক আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান, রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী বরজাহান, সদস্য আবুল হাসান খন্দকার, মহানগর শাখার সভাপতি অধ্যাপক সুজিত সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Post A Comment: