সিলেট নগরীর ফুটপাত দখলদার ও তাদের আশ্রয়দাতাদের তালিকা আদালতে জমা দিয়েছেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও কোতোয়ালি থানার ওসি গৌছুল হোসেন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে সিলেটের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে এ তালিকা জমা দেন তারা।
 

সিলেট নগরীর ফুটপাত দখলদার ও তাদের আশ্রয়দাতাদের তালিকা আদালতে জমা দিয়েছেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও কোতোয়ালি থানার ওসি গৌছুল হোসেন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে সিলেটের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে এ তালিকা জমা দেন তারা।


তালিকা জমা দেয়ার সত্যতা স্বীকার করে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি গৌছুল হোসেন বলেন, আমরা ১৫-১৬ জনের একটি তালিকা আদালতে জমা দিয়েছি।

আদালতের এপিপি মাহফুজুর রহমান বলেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও কোতোয়ালি থানার ওসি গৌছুল হোসেন আদালতে হকার ও তাদের আশ্রয়দাতাদের তালিকা জমা দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, সিলেট একটি আধ্যাত্মিক নগরী, একটি পবিত্র নগরী আর এ নগরীতে দলমত ও ভয়ভীতির ঊর্ধ্বে উঠে নগরী রাস্তা-ফুটপাত হকারদের দখলমুক্ত ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে সিলেট সিটি মেয়র ও কোতোয়ালি থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এর আগে আদালতের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও ফুটপাত দখলদারদের তালিকা জমা দিতে না পারায় আদালতে স্বশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেন সিলেটের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুজ্জামান হিরো। গত ৭ অক্টোবর আদালত এ আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির লিখিত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৫ মে ফুটপাত দখলকারীদের তালিকা প্রস্তুত করে প্রতিবেদন আকারে জমা দিতে মেয়রকে নির্দেশ দেন আদালত।

এক্ষেত্রে মেয়রকে সহযোগিতার জন্য কোতোয়ালি থানার ওসিকেও নির্দেশ দেন আদালত।

Post A Comment: