জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে যশোরে আটক সদর উপজেলার পাগলাদহ গ্রামের মোজাফফর হোসেনকে দুই দিনের রিমান্ডে দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে যশোরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড চাইলে বিচারক বুলবুল ইসলাম দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
 

জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে যশোরে আটক সদর উপজেলার পাগলাদহ গ্রামের মোজাফফর হোসেনকে দুই দিনের রিমান্ডে দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে যশোরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড চাইলে বিচারক বুলবুল ইসলাম দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।


জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে মোজাফফরকে ২৩ অক্টোবর যশোর শহরের এমএম কলেজের পুরাতন হল ছাত্রাবাসের মসজিদ থেকে আটক করে পুলিশ। এরপর ওই দিন সন্ধ্যায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্য তার বাড়ি ঘিরে ফেলে। রাত ১০টার দিকে পুলিশ মোজাফফরকে নিয়ে তার বাড়িতে যায় এবং একটি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি, তিনটি ম্যাগজিন, ৫০টি গ্রেনেডের বডি, বিপুল পরিমাণ জেল ও তিনটি চাকু উদ্ধার করে।

পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, মোজাফফর নব্য জেএমবির যশোরাঞ্চলের একজন সংগঠক। তার বাড়িতে জঙ্গিদের যাতায়াত ছিল।

মোজাফফর যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন (এমএম) কলেজের পুরনো ছাত্রাবাস মসজিদের ইমাম। তিনি স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে পাগলাদহ গ্রামে বসবাস করতেন। তাকে আটকের পর ওই দিন রাতেই কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাশার বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মামলাটি করেন। মামলায় মোজাফফর ছাড়াও অজ্ঞাত ৩/৪ জনকে আসামি করা হয়।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় পুলিশ তাকে যশোরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করে। আদালত ২৬ অক্টোবর শুনানির দিন ধার্য করে।

Post A Comment: