যশোরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান, অস্ত্র উদ্ধার ও নব্য জেএমবি’র সংগঠক মোজাফফরকে আটকের ঘটনায় মামলা হয়েছে। সোমবার গভীর রাতে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলাটি দায়ের করেছেন কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক বাবুল মিয়া।
In-Jessore-the-case-involving-militant-dormitories 

যশোরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান, অস্ত্র উদ্ধার ও নব্য জেএমবি’র সংগঠক মোজাফফরকে আটকের ঘটনায় মামলা হয়েছে। সোমবার গভীর রাতে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলাটি দায়ের করেছেন কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক বাবুল মিয়া।


এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে আটক নব্য জেএমবি’র সংগঠক মোজাফফরকে আদালতে সোপর্দ করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ। আদালত বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে মোজাফফরকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

এর আগে সোমবার রাতে যশোর সদর উপজেলার নওয়াপাড়া ইউনিয়নের পাগলাদহ মালোপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। অভিযানে গ্রেনেড তৈরির সরঞ্জাম, বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। অভিযানের আগেই আটক করা হয় আস্তানার মালিক মোজাফফর হোসেনকে। রাত পৌনে ৮টার দিকে বাড়িটি ঘিরে রাখার পর অভিযান শুরু হয় এবং রাত ১০টার দিকে তা শেষ হয়। এরপর ব্রিফিং করেন যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান।

ব্রিফিংকালে পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বাড়িটির মালিক মোজাফফর হোসেনকে সোমবার সন্ধ্যায় শহর থেকে আটক করা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ৫০টি গ্রেনেডের বডি, সুইচ ৫০টি, ৩১টি ব্রেকার, ১টি পিস্তল, ৩টি ম্যাগজিন, ৪ রাউন্ড গুলি, ৫ লিটার এসিডসহ বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান আরও জানান, মোজাফফর জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে তিনি নব্য জেএমবি’র এই অঞ্চলের সংগঠক। তার বাসায় জঙ্গিদের অবাধ যাতায়াত ছিল। এই অভিযানে মোজাফফরকে আটক করা হয়েছে। তবে তার পরিবারের সদস্য স্ত্রীসহ দুই মেয়ে পুলিশের নজরদারিতে রাখা হয়েছে। প্রয়োজন হলে তাদেরকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষে রাতে এ ঘটনায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা হয়েছে।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি আজমল হুদা জানান, কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক বাবুল মিয়া বাদী হয়ে মোজাফফরকে আসামি করে এ মামলাটি করেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।

Post A Comment: