হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার জিলুয়া গ্রামে কৃষক গৌরব চৌধুরী (২৫) হত্যা মামলায় চার আসামির ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে চারজনের সবাইকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া মামলার আরো পাঁচ আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে।
 

হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার জিলুয়া গ্রামে কৃষক গৌরব চৌধুরী (২৫) হত্যা মামলায় চার আসামির ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে চারজনের সবাইকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া মামলার আরো পাঁচ আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হয়েছে।


মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ৪টায় হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মাফরুজা পারভিন এ রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- জিলুয়া গ্রামের গৌর মোহন দাস, দিলীপ দাস, সমীর দাস ও তপু দাস।

এছাড়া গণেন দাস ও গৌরাঙ্গ দাসকে তিন বছরের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। রামু দাস, নীল মোহন দাস ও রামচরণ দাসকে এক বছর করে কারাদণ্ড ও এক হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।


রায় ঘোষণার সময় রামু দাস ছাড়া অন্য আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ২৪ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০১ সালের ১০ নভেম্বর আজমিরীগঞ্জ উপজেলার জিলুয়া এলাকায় চাউলেরবন্দ জলাশয়ে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে পবনেন্দ্র চৌধুরীর ছেলে গৌরব চৌধুরীর সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় আসামিদের।

একপর্যায়ে তারা গৌরব চৌধুরীকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহত গৌরব চৌধুরীর বড় ভাই গৌরাঙ্গ চৌধুরী বাদী হয়ে আজমিরীগঞ্জ থানায় ৩৩ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় ২৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে মঙ্গলবার এ রায় ঘোষণা করেন আদালত।

রাষ্ট্রপক্ষের মামলা পরিচালনাকারী অতিরিক্ত পিপি আবদুল আহাদ ফারুক জানান, ‘এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট।’

Post A Comment: