দেশের খাদ্য অধিকার বাস্তবায়নের জন্য অবিলম্বে চালের দাম কমানো, ওএমএস এর চালের দাম কমানোর ব্যবস্থা করাসহ ১৬টি সুপারিশ তুলে ধরেছেন খাদ্য অধিকার বাংলাদেশের সভাপতি ড. কাজী খলিকুজ্জামান। খাদ্য অধিকার বাস্তবায়নে এই ১৬টি সুপারিশ বাস্তবায়ন জরুরি বলে মনে করেন তিনি।
16-point-recommendation-for-the-implementation-of-food-rights 

দেশের খাদ্য অধিকার বাস্তবায়নের জন্য অবিলম্বে চালের দাম কমানো, ওএমএস এর চালের দাম কমানোর ব্যবস্থা করাসহ ১৬টি সুপারিশ তুলে ধরেছেন খাদ্য অধিকার বাংলাদেশের সভাপতি ড. কাজী খলিকুজ্জামান। খাদ্য অধিকার বাস্তবায়নে এই ১৬টি সুপারিশ বাস্তবায়ন জরুরি বলে মনে করেন তিনি।


সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে খাদ্য অধিকার প্রচারাভিযান শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন ড. খলিকুজ্জামান।  আলোচনা সভার আয়োজন করে খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ।

খলিকুজ্জামান বলেন, ‘দেশের মানুষের খাদ্য অধিকার নিশ্চিত করতে বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।  খাদ্য অধিকার আইন বাস্তবায়ন করতে হবে। বন্যা ও দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের অর্থ সহায়তা দিতে হবে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির যথাযথ বাস্তবায়ন এবং সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে।’

সমতলের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন্য সামাজিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে জানিয়ে খলিকুজ্জামান বলেন, ‘শহরের দরিদ্রদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা গড়ে তুলতে হবে। ক্ষুদ্র কৃষকদের চারা-বীজ ও সার সহায়তা প্রদান করে তাদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে হবে। পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত এবং কৃষিপণ্য উৎপাদনে টেকশই ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। সেই সাথে পানি প্রবাহের কথা চিন্তা করে বাঁধ নির্মাণ, জলবায়ু পরিবর্তনে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলায় দেশের অর্থনীতি ও অবকাঠামো ব্যবস্থার উন্নয়নের টেকসই পরিকল্পনা প্রণয়নসহ রাষ্ট্র কর্তৃক খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

অনুষ্ঠান শেষে একটি র‌্যালি জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দোয়েল চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

Post A Comment: