হবিগঞ্জ শহরতলীর লম্বাবাক এলাকায় খোয়াই নদীতে নৌকাডুবির ঘটনার ৪ দিন পর আরো ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে গত শনিবার নিখোঁজ ১ জন ও রোববার ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ জন। নিখোঁজ রয়েছেন আরো ২ জন।
 

হবিগঞ্জ শহরতলীর লম্বাবাক এলাকায় খোয়াই নদীতে নৌকাডুবির ঘটনার ৪ দিন পর আরো ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এর আগে গত শনিবার নিখোঁজ ১ জন ও রোববার ২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ জন। নিখোঁজ রয়েছেন আরো ২ জন।


সোমবার সকালের দিকে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লুকড়া ইউনিয়নের গজারিয়াকান্দি এলাকায় নদীতে ভাসমান অবস্থায় বানিয়াচঙ্গ উপজেলা বড়কান্দি গ্রামের আলাই মিয়া মেয়ে নুরজাহান বেগমের (২৬) লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠান।
 

 এদিকে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে শাহপুর এলাকা থেকে নিখোঁজ ফাদ্রাইল গ্রামের জালাল মিয়া চৌধুরীর ছেলে রাকিব মিয়া চৌধুরীর (৫) লাশ উদ্ধার করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ শহরের চৌধুরী বাজার এলাকা থেকে একটি সিমেন্ট বোঝাই ইঞ্জিনের নৌকা ৩৫ জন যাত্রী নিয়ে কাশিপুর যাওয়ার পথে খোয়াই নদীর লম্বাবাদ এলাকায় গিয়ে ডুবে যায়। এ সময় অনেকেই সাতার দিয়ে নদীর পাড়ে উঠতে পারলেও ১০ জন নিখোঁজ ছিলেন। এ ঘটনার পর পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন ওই দিন রাতেই ৩ জনের লাশ উদ্ধার করলেও নিখোঁজ থাকে ৭ জন

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক জানান, সোমবার সকালে ও বিকেলে এক নারীসহ আনো দু’জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

Post A Comment: