গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা এক কিশোরীকে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তারা মিয়া (৪০) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।
 


গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে অন্তঃসত্ত্বা এক কিশোরীকে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তারা মিয়া (৪০) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।


উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে ওই কিশোরী গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, তারা মিয়া ওই অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর আপন খালু হন। পাশাপাশি বাড়ি হওয়ায় মেয়েটি মাঝে মধ্যেই টেলিভিশন দেখতে খালুর বাড়িতে আসতো। এ সময় তারা মিয়া বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। এতে মেয়েটি পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

তিনি জানান, সোমবার দুপুরের দিকে ওষুধ সেবন করিয়ে কিশোরীর গর্ভপাত ঘটানো হয়। এতে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

তবে তারা মিয়া এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘মেয়েটিকে আমি নিজের সন্তানের মতো ভালবাসতাম।’

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) নাজমুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ লোকজন তারা মিয়াকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।

Post A Comment: