অনিয়ম, দুর্নীতি ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট কাস্টমস তল্লাশি কেন্দ্রে দায়িত্বরত তিন কাস্টমস কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
Recall-three-customs-officials-in-Benapole 

অনিয়ম, দুর্নীতি ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট কাস্টমস তল্লাশি কেন্দ্রে দায়িত্বরত তিন কাস্টমস কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।


বেনাপোল চেকপোস্ট তল্লাশি কেন্দ্রের রাজস্ব কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, প্রত্যাহার করা এই তিন কর্মকর্তার মধ্যে রয়েছেন রাজস্ব কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম, সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আজিজুল হক এবং সুলতান মিয়া।

রাজস্ব কর্মকর্তা কামরুল ইসলামকে কাস্টম হাউসের পোস্ট অডিট এবং সুলতান মিয়াকে নিলাম শাখায় ‘শাস্তিমূলক’ বদলি করা হলেও আজিজুল হককে কোনো পোস্টিং দেওয়া হয়নি।

কাস্টমস সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে এই তিন কর্মকর্তা চেকপোস্টে যাত্রীদের কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে আসছিলেন। তারা লাগেজ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আঁতাত করে মোটা টাকা নিয়ে রাজস্ব ফাঁকিতে সহায়তা করছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ১২ সেপ্টেম্বর কলকাতা থেকে ফিরে আসা বাংলাদেশি যাত্রী মোশারফ হোসেন মিন্টুর (পাসপোর্ট নম্বর-বিই- ০৭৫৩৮৮১) কাছ থেকে লাগেজ তল্লাশির ভয় দেখিয়ে দুই হাজার টাকা ঘুষ আদায় করেন অভিযুক্ত এই তিন কর্মকর্তা। পরে ওই যাত্রী বেনাপোল কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. শওকাত হোসেনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তদন্তে ঘটনাটির সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ওই তিন কর্মকর্তাকে চেকপোস্ট থেকে প্রত্যাহার করা হয়।

এ ব্যাপারে বেনাপোল কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. শওকাত হোসেন বলেন, চেকপোস্টে কর্মরত এই তিন কর্মকর্তার কাজে কর্তৃপক্ষ সন্তষ্ট না হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

Post A Comment: