চলতি মাসে অনুষ্ঠিতব্য আশিয়ান সম্মেলনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন ইস্যু নিয়ে যাতে কোনো ধরনের আলোচনা না হয়, সে উদ্যোগ নিয়েছে মিয়ানমার।
Myanmar-desperate-to-prevent-Rohingya-issue-in-Ashiana 

চলতি মাসে অনুষ্ঠিতব্য আশিয়ান সম্মেলনে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতন ইস্যু নিয়ে যাতে কোনো ধরনের আলোচনা না হয়, সে উদ্যোগ নিয়েছে মিয়ানমার।


ফিলিপাইন কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে তুরস্কের সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি মঙ্গলবার এ খবর দিয়েছে।

মূল সম্মেলনের আগে আগামী বৃহস্পতিবার ম্যানিলায় আশিয়ানের আন্তঃসংসদীয় বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

আশিয়ান সম্মেলনে যাতে সাম্প্রতিক রোহিঙ্গা নির্মূল অভিযানের জন্য মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিকভাবে চাপ দেওয়া হয়, সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে ফিলিপাইন সরকার। কিন্তু, এতে ঘোর আপত্তি রয়েছে সু চি সরকারের।

আর্তেমিও আদেসা নামে ফিলিপাইনের এক আইনপ্রণেতা সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘মিয়ানমার আপত্তি তোলায় আশিয়ান সম্মেলনে আমাদের পক্ষে থেকে এই সংক্রান্ত আলোচনার প্রস্তাব করাটা অসম্ভব হয়ে যাবে।’

ফিলিপাইনের হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস এর উপ-মহাসচিব আদেসা জানান, মিয়ানমারের আপত্তি সত্ত্বেও রোহিঙ্গা সংকটের ব্যাপারে সম্মেলনে কিছু দ্বিপক্ষীয় চুক্তি হতে পারে।

আদেসা অবশ্য বলছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুটা মিয়ানমারের জন্য বরাবরই একটি জাতীয় সমস্যা হিসেবে ছিল, যা মেটাতে হবে তাদেরই।

আশিয়ানের পক্ষ থেকে অবশ্য বলা হয়েছে, সম্মেলনের বাইরে যে কোনো সদস্য রাষ্ট্র পৃথক দ্বিপাক্ষিক চুক্তি করতে পারবে এবং তা সম্মেলনের কার্যসূচির বাইরেও হতে পারে।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ওপর রোহিঙ্গা যোদ্ধারা হামলা চালালে জাতিগত নিধন অভিযানে নামে মিয়ানমার। সেনা অভিযানের কারণে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায়ের এক তৃতীয়াংশ মানুষ দেশত্যাগে বাধ্য হয়।

নিজভূম ছেড়ে তারা সীমান্ত পেরিয়ে প্রতিবেশী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এসব রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী এবং উগ্রবাদী বৌদ্ধদের দ্বারা তারা নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। সেখানে তাদের গ্রামের বাড়িঘরও আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

গেল রোববার বাংলাদেশে নিযুক্ত ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত আর্চবিশপ জর্জ কোচেরি জানান, গত ২৫ আগস্ট থেকে সেনাবাহিনীর অভিযানে ৩ হাজারের অধিক রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন।

আর জাতিসংঘ জানিয়েছে, প্রাণ বাঁচাতে প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

Post A Comment: