মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মুক্তারপুর বিসিক এলাকায় অবস্থিত একটি পোশাক কারখানায় আগুন লাগার ঘটনায় তিন শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সকালে কারখানার চতুর্থ তলায় আগুন লাগে। এতে ভেতরে চার শ্রমিক আটকা পড়ে। তারা হলেন নাজমুল, ইসরাত, উজ্জ্বল ও নাজমা। পরে তিন শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
 

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মুক্তারপুর বিসিক এলাকায় অবস্থিত একটি পোশাক কারখানায় আগুন লাগার ঘটনায় তিন শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সকালে কারখানার চতুর্থ তলায় আগুন লাগে। এতে ভেতরে চার শ্রমিক আটকা পড়ে। তারা হলেন নাজমুল, ইসরাত, উজ্জ্বল ও নাজমা। পরে তিন শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


মুক্তারপুর নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন জানান, সকাল ১০টার দিকে টোল প্লাজা এলাকার আইডিয়াল টেক্সটাইল মিলে আগুন লাগে। ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করার সময় আগুনের ফুলকি কেমিক্যাল পদার্থের উপর পড়লে আগুন ধরে যায় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আগুন নেভাতে কাজ শুরু করে।


ফায়ার সার্ভিসের নারায়ণগঞ্জের উপ-পরিচালক ফরিদ উদ্দিন জানায়, খবর পেয়ে মুন্সীগঞ্জ থেকে দুটি ও নারায়ণগঞ্জ থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট আগুন নেভাতে কাজ শুরু করে। পরে ভবনের চার তলা থেকে তিন শ্রমিকের পুড়ে যাওয়া মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পুরো শরীর পুড়ে যাওয়ায় নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করা যাচ্ছে না।

এদিকে দুর্ঘটনার পরপরই জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আইডিয়াল টেক্সটাইল মিলের জিএমসহ চারজন কর্মকর্তাকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া নিহত শ্রমিকদের দাফন করার জন্য জেলা প্রশাসক ২০ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

Post A Comment: