খুব মজা করে তো খেয়ে নিলেন শন পাপড়ি। কখনো কি ভেবেছেন যে এই মজাদার খাবারটি তৈরিতে কি অবর্ণনীয় কষ্ট করতে হয়? জি হ্যাঁ, শন পাপড়ি তৈরির রেসিপিটি এতই কঠিন যে আপনারা অনেকেই কল্পনাও করতে পারবেন না! এতই কষ্টসাধ্য যে অনেক পাকা রাঁধুনিও পদ্ধতি দেখে ভড়কে যেতে পারেন। মিষ্টির দোকানে কীভাবে তৈরি হয় শন পাপড়ি? চলুন, আজ একটি ভিডিওতে সেটা দেখাই আপনাদের। শন পাপড়ি তৈরির সম্পূর্ণ প্রণালিটি বিস্তারিত দেখতে পাবেন ভিডিওতেই। কেউ যদি ঘরে তৈরি করতে চান, তাঁদের সুবিধার্থে উপকরণের তালিকাটি স্বল্প পরিসরে যোগ করে দেয়া হলো।

 

খুব মজা করে তো খেয়ে নিলেন শন পাপড়ি। কখনো কি ভেবেছেন যে এই মজাদার খাবারটি তৈরিতে কি অবর্ণনীয় কষ্ট করতে হয়? জি হ্যাঁ, শন পাপড়ি তৈরির রেসিপিটি এতই কঠিন যে আপনারা অনেকেই কল্পনাও করতে পারবেন না! এতই কষ্টসাধ্য যে অনেক পাকা রাঁধুনিও পদ্ধতি দেখে ভড়কে যেতে পারেন।

মিষ্টির দোকানে কীভাবে তৈরি হয় শন পাপড়ি? চলুন, আজ একটি ভিডিওতে সেটা দেখাই আপনাদের। শন পাপড়ি তৈরির সম্পূর্ণ প্রণালিটি বিস্তারিত দেখতে পাবেন ভিডিওতেই। কেউ যদি ঘরে তৈরি করতে চান, তাঁদের সুবিধার্থে উপকরণের তালিকাটি স্বল্প পরিসরে যোগ করে দেয়া হলো।

উপকরণঃ
সোয়া এক কাপ খুব ভালো মানের বেসন
সোয়া এক কাপ ময়দা
২৫০ গ্রাম খুব ভাল ঘি
আড়াই কাপ চিনি (ময়দা ও বেসন মিলিয়ে যেটুকু হয়, সেটার সম পরিমাণ চিনি)
দেড় কাপ পানি
২ চা চামচ দুধ (ঐচ্ছিক)
এলাচ দানা, বাদাম কুচি, কিসমিস এগুলো ঐচ্ছিক

প্রণালীঃ
যেগুলো না মানলে কখনোই ভালো শন পাপড়ি তৈরি হবে না-
 অবশ্যই রেসিপিতে দেয়া পরিমাণ মেনে চলুন। ময়দা, বেসন, ঘি, চিনি সবক্ষেত্রেই। চিনি কোনভাবেই বেশি দেয়া যাবে না। শারীরিকভাবে বলশালী না হলে এই জিনিস তৈরির কষ্ট না করাই ভালো। ক্যারামেল তৈরির সময় পুড়িয়ে ফেললে পুরো খাবারটাই তেতো হয়ে যাবে। সমস্ত উপকরণ যত ভালো মানের হবে, খাবারটা তত সুস্বাদু হবে। এয়ার টাইট প্যাকেট বা যারে শন পাপড়ি ২০ দিন পর্যন্ত ভালো থাকবে। ফ্রিজে রাখার প্রয়োজন নেই।

 
চলুন, এবার দেখে নিই শন পাপড়ি তৈরির বিস্ময়কর প্রণালিটি। আর হ্যাঁ, এই ভিডিওটি আমাদের দেশি নয়। বরং ভারতে তৈরি।

 

Post A Comment: