আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার দায় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকেও নিতে হবে। তার মদদ ছাড়া এই ধরনের হামলা হতেই পারে না। তাকে এই হামলার জন্য দায়ী করে তার বিচার করতে হবে।’



আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার দায় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকেও নিতে হবে। তার মদদ ছাড়া এই ধরনের হামলা হতেই পারে না। তাকে এই হামলার জন্য দায়ী করে তার বিচার করতে হবে।’

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার সময় দেশে প্রধানমন্ত্রী ছিলেন খালেদা জিয়া। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ১ আগস্ট মঙ্গলবার ২১ আগস্ট বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল এবং হত্যার যড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত তারাই আবার সংগঠিত হয়ে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের যারা নিমর্মভাবে হত্যা করেছিল তাদের বিচার এই মাটিতে হয়েছে। কিন্তু এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত জিয়াউর রহমানসহ অন্যদের বিচার এখনও হয়নি। তাদের বিচার করতে হবে এবং এই বাংলার মাটিতে তাদের বিচার হবেই।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিমসহ আরও অনেকে।

Post A Comment: