ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের বেঙ্গালুরু শহরের দু’টি লেকে রহস্যময় সাদা ফেনা স্থানীয়দের জন্য ভয়াবহ সমস্যার সৃষ্টি করেছে। চলতি বছরের মে মাসে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রথমে ভার্থুর লেকে ভেসে থাকা রহস্যময় ফেনার খবর প্রচারিত হয়। সেসময় বলা হয়, বিষাক্ত রাসায়নিক এই ফেনা মানুষের শরীরে লাগলে প্রচণ্ড চুলকানি ও জ্বালাপোড়া করে।
The-locals-are-trapped-in-the-Bengaluru-Lake-poisonous-foam 

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের বেঙ্গালুরু শহরের দু’টি লেকে রহস্যময় সাদা ফেনা স্থানীয়দের জন্য ভয়াবহ সমস্যার সৃষ্টি করেছে। চলতি বছরের মে মাসে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রথমে ভার্থুর লেকে ভেসে থাকা রহস্যময় ফেনার খবর প্রচারিত হয়। সেসময় বলা হয়, বিষাক্ত রাসায়নিক এই ফেনা মানুষের শরীরে লাগলে প্রচণ্ড চুলকানি ও জ্বালাপোড়া করে।


শহরের ভার্থুর লেকের পানি সেবার বিজ্ঞানীরা পরীক্ষা করে জানান, রাসায়নিক পদার্থটির পরিচয় না জানলেও এটি যে মারাত্মক বিষাক্ত এতে কোনো সন্দেহ নেই! প্রাথমিকভাবে তারা ধারণা করেন, লেকের পানি দূষিত হওয়াতেই এমন ফেনার সৃষ্টি। প্রায় ১৮০ হেক্টর বিস্তৃত ভার্থুর লেক বেঙ্গালুরুর সবচেয়ে বড় লেকগুলির অন্যতম। কিন্তু আশপাশের বিভিন্ন কারখানার বর্জ্য, বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ এবং আবর্জনা এসে ওই জলাশয়ে জমা হওয়ায় তা দূষিত হয়ে পড়েছে।
 


এদিকে, ভার্থুর লেকের মতো এক হাজার একরের বেলান্ডুর লেকেও রহস্যময় সাদা ফেনা দেখা যাচ্ছে। ক্রমাগত বৃষ্টির কারণে লেক দু’টির এই বিষাক্ত ফেনা শহরের বড় রাস্তাগুলিতে ছড়িয়ে পড়ায় যান চলাচলেও সমস্যার সৃষ্টি করেছে। এমন অবস্থায় স্থানীয়রা বাধ্য হয়ে বাড়িতে থাকছেন। ফলে লেকের স্থানীয়দের জীবনযাত্রা প্রায় অচল হয়ে পড়েছে। 
 


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, ভার্থুর লেকের পানিতে ফোমের মাত্রা এতটাই বেড়েছে যে কোথাও কোথাও তা দোতলা সমান উঁচু হয়ে বাতাসে ভাসছে। এমন অবস্থায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামিয়া বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, লেকের পানির দূষণ রোধে তার সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।


তবে ফোম সমস্যার দ্রুত সমাধান হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি। দূষণের মাত্রা কমিয়ে লেক দুটির পানি স্বাভাবিক হতে দু’বছর লেগে যেতে পারে বলেও মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আগামী বছর বিধানসভার পুন:নির্বাচনের যে দাবি সিদ্দারামিয়া করছেন তা বুমেরাং হয়ে দেখা দিতে পারে। অনেকের মতে, এই লেকের পানিতেই তলিয়ে যেতে পারে মুখ্যমন্ত্রীর অতীত সাফল্য।
 


কিছুদিন আগেই ভার্থুর আর বেলান্ডুর লেকে আগুন লেগে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের শিরোনাম হয় বেঙ্গালুরু। এরপর থেকেই রাজ্যের বিডিএ সংস্থা (Bangalore Development Authority) উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পাম্পের সাহায্যে ভাসমান ফেনা অপসারণের কাজ শুরু করে। তবে তাতে সাফল্য এসেছে খুবই সামান্য।

ব্রিটেন এবং ইসরায়েল থেকেও বিশেষজ্ঞ আনা হয়। তারা লেকের পানি পরীক্ষা করে বলেন, এই সমস্যার সমাধান করা তো খুব সহজ কাজ! ভারতীয় কর্তৃপক্ষ তখন সমাধানের উপায় জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘পানিতে দূষণের পথ বন্ধ করুন! সব স্বাভাবিক হয়ে যাবে!’

Post A Comment: