রাজশাহীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুর সোয়া একটার দিকে জেলার বাঘা ও নাটোরের লালপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।
The-family-was-taken-to-the-family-to-catch-the-body-of-two-students

    রাজশাহীতে নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুর সোয়া একটার দিকে জেলার বাঘা ও নাটোরের লালপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।


নিহতরা হলো- বাঘা উপজেলার আড়াইচান্দপুর গ্রামের মন্টু আলীর ছেলে সবুজ আলী (১৭) ও খানপুর গ্রামের চাঁদ সর্দারের ছেলে মনিরুল ইসলাম (১৫)। সবুজ উচ্চ মাধ্যমিক ও মনিরুল দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

রাজশাহীর সদর দমকল বাহিনীর সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফরহাদ হোসেন জানান, নিহতরা দরিদ্র পরিবারের সন্তান। পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর জন্য অন্যের জমিতে কাজ করার পাশাপাশি পড়াশোনা করতো।

শুক্রবার সকালে দু’জন বাঘার খেয়াঘাট এলাকায় পাট কাটতে যাওয়ার জন্য অন্য ৪৫/৫০ জন শ্রমিকের সঙ্গে নৌকায় ওঠে। কিন্তু মাঝ নদীতে গিয়ে নৌকাটি ডুবে যায়।

এ সময় অন্যরা সাঁতরে পাড়ে উঠলেও সবুজ ও মনিরুল নদীতে তলিয়ে যায়। খবর পেয়ে বেলা ১১টার দিকে পাঁচ সদস্যের ডুবুরি দল এসে উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তাদের সঙ্গে যুক্ত হয় নাটোরের লালপুর দমকল বাহিনীর আরেকটি ইউনিট।

পরে দুপুর সোয়া একটার দিকে নদীর তলদেশ থেকে দুই শিক্ষার্থীর লাশ একসঙ্গেই উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারের পর খানপুর বাজারে গিয়ে তাদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয় বলেও জানান দমকল বাহিনীর সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফরহাদ হোসেন।

Post A Comment: