গতানুগতিক ফ্রাইড রাইস এখনো পাওয়া যায় প্রতিটি রেস্টুরেন্টেই এমনকি রাস্তার পাশের ফুডকার্টগুলোতেও। আর এই ফ্রাইড রাইস রান্নার পদ্ধতিটি একবারে নখদর্পণে এনে ফেলেছেন রাঁধুনিরা। এই পুরনো স্বাদ আর কতো? চলুন একটু নতুন কিছু চেখে দেখা যাক। আজ জেনে নিন মেক্সিকান রাইসের রেসিপিটি। এই রেসিপি একেবারে হুবহু মেক্সিকান নয়, মূলত এই উপমহাদেশের মানুষের স্বাদের সাথে মিল রেখে আনা হয়েছে কিছু পরিবর্তন।
The-different-taste-of-fried-rice-Mexican-rice 


 গতানুগতিক ফ্রাইড রাইস এখনো পাওয়া যায় প্রতিটি রেস্টুরেন্টেই এমনকি রাস্তার পাশের ফুডকার্টগুলোতেও। আর এই ফ্রাইড রাইস রান্নার পদ্ধতিটি একবারে নখদর্পণে এনে ফেলেছেন রাঁধুনিরা। এই পুরনো স্বাদ আর কতো? চলুন একটু নতুন কিছু চেখে দেখা যাক। আজ জেনে নিন মেক্সিকান রাইসের রেসিপিটি। এই রেসিপি একেবারে হুবহু মেক্সিকান নয়, মূলত এই উপমহাদেশের মানুষের স্বাদের সাথে মিল রেখে আনা হয়েছে কিছু পরিবর্তন।


উপকরণ


- ২ কাপ চাল

- দেড় টেবিল চামচ তেল (অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন)

- দেড় কাপ সবজি কুচি

- এক মুঠো ভুট্টার বীজ

- ৩/৪ কোয়া রসুন

- আধা চা চামচ শুকনো মরিচ কুচি

- আধা চা চামচ জিরা গুঁড়ো

- ৩ টেবিল চামচ ওরচেস্টারশায়ার সস

- ১ চা চামচ বালসামিক ভিনেগার

- ২/৩ টেবিল চামচ টমেটো সস

- ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি

- ২ টেবিল চামচ পনির কুচি (ইচ্ছা)

- লবণ স্বাদমতো

প্রণালী


১) একটি হাঁড়িতে অলিভ অয়েল গরম করে নিন মাঝারি আঁচে। এতে রসুন দিয়ে ভেজে নিন। রসুনের সুবাস এলে এতে কুচি করা সবজি এবং ভুট্টার দানা দিয়ে দিন। ৫ মিনিট নেড়েচেড়ে ভেজে নিন।

২) এতে মরিচ, জিরা, টমেটো সস, ওরচেস্টারশায়ার সস, ভিনেগার এবং লবণ দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন।

৩) এবার এতে ধোয়া চাল দিয়ে দিন ও নেড়ে ভেজে নিন ৪ মিনিট।

৪) ধনেপাতা দিন। এরপর হাঁড়িতে সাড়ে ৩ কাপ পানি দিয়ে ফুটিয়ে নিন। পানি ফুটে এলে আঁচ কমিয়ে ঢাকনা চাপা দিয়ে দিন। চাল সেদ্ধ হয়ে আসা পর্যন্ত আঁচে রাখুন। নাড়বেন না।

৫) সেদ্ধ হয়ে পানি টেনে গেলে আপনি এভাবেই পরিবেশন করতে পারেন। পনির খেতে আপত্তি না থাকলে একটি পাত্রে এই রাইস নিন, ওপরে পনির কুচি ছড়িয়ে ওভেনে বেক করে নিন ১০-১২ মিনিট।

পরিবেশন করতে পারেন পটেটো ওয়েজেসের সাথে। এই পরিমাণ মেক্সিকান রাইস পরিবেশন করা যাবে ৪-৫ জন মানুষের এক বেলার খাবার হিসেবে।

Post A Comment: