করদাতারা যাতে আরও সহজে কর পরিপালন করতে পারে সেজন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড নিয়মিত কর ব্যবস্থাপনার সংস্কারের মাধ্যমে কর ব্যবস্থাকে অধিকতর সহজ, আধুনিক ও যুগোপযোগী করে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে কোম্পানি, সমবায় সমিতি ও এনজিওর উৎস করের অধিক্ষেত্র সংশোধন করা হয়েছে।
Tax-management-has-become-easier 

করদাতারা যাতে আরও সহজে কর পরিপালন করতে পারে সেজন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড নিয়মিত কর ব্যবস্থাপনার সংস্কারের মাধ্যমে কর ব্যবস্থাকে অধিকতর সহজ, আধুনিক ও যুগোপযোগী করে যাচ্ছে। এর অংশ হিসেবে কোম্পানি, সমবায় সমিতি ও এনজিওর উৎস করের অধিক্ষেত্র সংশোধন করা হয়েছে।


শুক্রবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করদাতাদের সুবিধার্থে উৎস কর ব্যবস্থাপনাকে আরও সহজ করার জন্য নতুন অধিক্ষেত্র আদেশ জারি করা হয়েছে। নতুন আদেশ অনুযায়ী কোনো কোম্পানি বা কোনো সমবায় সমিতি বা এনজিও কর্তৃক উৎসে কর্তিত বা সংগৃহিত কর তাদের কর নির্ধারণ যে কর অঞ্চল/ইউনিট এর অধিক্ষেত্রাধীন সে কর অঞ্চল/ইউনিট এর অনুকূলে সরকারি কোষাগারে জমা এবং উৎস করের রিটার্নও সংশ্লিষ্ট কর অঞ্চল/ইউনিট এ দাখিল করতে পারবে।

ফলে এখন থেকে কর দিতে একাধিক কর অঞ্চলে যেতে হবে না। যা উৎসে কর কর্তন/সংগ্রহ এবং কর্তিত/ সংগৃহিত কর সরকারি কোষাগারে জমা প্রক্রিয়াকে অধিকতর সহজ এবং ঝামেলামুক্ত করবে। নতুন অধিক্ষেত্র আদেশটি বাংলাদেশের ব্যবসা পরিচালনা সহজীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান বলেন, সম্মানিত করদাতাদের হয়রানি রোধ করতে এনবিআর কাজ করে যাচ্ছে। উৎসে কর রাজস্বের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। উৎসে করের অধিক্ষেত্র সংশোধনের মাধ্যমে কোম্পানি, সমবায় সমিতি ও এনজিও করদাতারা আরো সহজ ভাবে কর পরিশোধের সুযোগ পাবে।’

Post A Comment: