সাত বন্ধু মিলে ঘুরতে গিয়েছিল ভারতের মহারাষ্ট্রের জনপ্রিয় পিকনিক কেন্দ্র আমবলি ঘাটে। সেখানেই দুই বন্ধু মদ্যপান করে চড়ে বসে এক রেলিং-এ। পরে পা পিছলে ২০০০ ফুট ওপর থেকে পড়ে যায় গভীর খাদে। এ রকম একটি ভিডিও ক্লিপ অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নিখোঁজদের উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।
System-to-spread-religious-tension-on-Facebook-and-Twitter-in-Janmastami

সাত বন্ধু মিলে ঘুরতে গিয়েছিল ভারতের মহারাষ্ট্রের জনপ্রিয় পিকনিক কেন্দ্র আমবলি ঘাটে। সেখানেই দুই বন্ধু মদ্যপান করে চড়ে বসে এক রেলিং-এ। পরে পা পিছলে ২০০০ ফুট ওপর থেকে পড়ে যায় গভীর খাদে। এ রকম একটি ভিডিও ক্লিপ অনলাইনে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নিখোঁজদের উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।


শুক্রবার এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কাওয়ালে সাদ পয়েন্টে একটি ব্রিজের ওপর থেকে সোমবার এই দৃশ্য ধারণ করেছে নিখোঁজ দুই তরুণের বন্ধুরা।

জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা সুনিল দানাওয়াদে জানান, প্রচুর বৃষ্টির কারণে ইমরান গারাদি(২৬) এবং প্রতাপ রাঠোরের(২১) দেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

ঐ সাত বন্ধু কোলহাপুরের একটি পোলট্রি ফার্মে কাজ করে। ঘটনার দিন অন্যান্য বন্ধুরা চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও ইমরান ও প্রতাপ অস্বীকৃতি জানায়। তারা সেখানেই মদ্যপান করতে থাকে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ইমরান ও প্রতাপ মদ্যপান করে রেলিং-এর ওপর বসছে। সেখানে তারা কিছুক্ষণ থেকে নিচে নামে। এই সময় তার অন্যান্য বন্ধুরা হাসাহাসি করছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পর ইমরান ও প্রতাপ আবার রেলিং-এ চড়ে বসে এবং রেলিং অতিক্রম করে ওপাশে কিনারায় দাঁড়ায়। তাদের বন্ধুরা তখন চিৎকার করে সতর্ক করছিল। তখন ইমরান ও প্রতাপ হাসাহাসি করছিল। হঠাৎ করে তাদের একজনের পা পিছলে গেলে অন্যজনের হাতে ধরে। মুহূর্তেই দুজন ২০০০ ফুট গভীর খাদে পড়ে যায়।

কয়েক ঘন্টা পর পর্বত আরোহী এবং ট্রেকিং গ্রুপের সদস্যরা তল্লাশি চালিয়ে নিখোঁজ দুই ব্যক্তির দেহ উপত্যকার নিচে শনাক্ত করেছে। তবে বৃষ্টির কারণে তাদের দেহ উদ্ধার করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে ঐ পুলিশ কর্মকর্তা।

Post A Comment: