ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী-এমপি যেভাবে বক্তব্য দিচ্ছেন- তা উচ্চ আদালত, আইনের শাসন ও গণতন্ত্রের জন্য ভয়ঙ্কর ও উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও দলের ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।
Minister-and-MPs-are-anxious-for-democracy 

ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী-এমপি যেভাবে বক্তব্য দিচ্ছেন- তা উচ্চ আদালত, আইনের শাসন ও গণতন্ত্রের জন্য ভয়ঙ্কর ও উদ্বেগজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও দলের ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।


সোমবার রাতে চুয়াডাঙ্গায় বিএনপির সদস্য সংগ্রহ অভিযানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি অভিযোগ করেন, রায়ের পর সরকারের পক্ষ থেকে পরিকল্পিতভাবে প্রধান বিচারপতিকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যা সংবিধান ও আইনের শাসনের পরিপন্থী। পৃথিবীর কোন সভ্য দেশে রায় নিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে এমন বিতর্ক  তৈরির ঘটনা বিরল।

বাংলাদেশের বিচার বিভাগ নিয়ে সরকারের যেসব মন্ত্রী-এমপি বিতর্ক সৃষ্টির চেষ্টা করছেন, তাদের অবিলম্বে পদত্যাগেরও পরামর্শ দেন বিএনপির প্রভাবশালী এ নেতা।

শামসুজ্জামান দুদু প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের ঘটনার উদ্ধৃতি টেনে সরকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সেদেশে প্রধান বিচারপতি প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে অবৈধ ঘোষণার পর তিনি স্বেচ্ছায় বাড়ি ফিরে গেছেন। সেখানে কোন বিতর্কের ঘটনা ঘটেনি।

ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে বিচারব্যবস্থা ও সংবিধান নিয়ে সরকারি দল যে বিতর্কের সৃষ্টি করেছে, তার দায়ভার সরকারকে কাঁধে তুলে নিয়ে পদত্যাগেরও আহ্বান জানান দুদু।

এ সময় তার সাথে ছিলেন- জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মজিবুল হক মালিক মজু, ওয়াহিদুজ্জামান বুলা, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রেজাউল করিম মুকুটসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

Post A Comment: