মূল্য সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার সপ্তাহের পঞ্চম কার্যদিবসে উভয় শেয়ারবাজারে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে।
Both-the-index-and-the-transaction-increased


মূল্য সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার সপ্তাহের পঞ্চম কার্যদিবসে উভয় শেয়ারবাজারে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে।


ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৯৬১ কোটি ৯২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের তুলনায় ৯৫ কোটি ৮২ লাখ টাকা বেশি। গতকাল এ বাজারে ৮৬৬ কোটি ১০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল।

ডিএসইতে আজ ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ১১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫৯০১ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩১৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২১২৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৩২টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৫টির, কমেছে ১৭৩টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৪টি কোম্পানির শেয়ার দর। যা টাকায় লেনদেন হয়েছে ৯৬১ কোটি ৯২ লাখ ৬৫ হাজার টাকা।

এর আগে গতকাল বুধবার ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৭ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৫৮৯০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৩১১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ২১২১ পয়েন্টে। ওইদিন লেনদেন হয় ৮৬৬ কোটি ১০ লাখ ১১ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৯৫ কোটি ৮২ লাখ ৫৪ হাজার টাকা।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ সিএসইতে ৫৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৩১২ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, কমেছে ১৫১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টির।

আজ লেনদেনের শীর্ষে থাকা ১০ কোম্পানি হলো: সি এন্ড এ টেক্সটাইলস লিমিটেড, ফরচুন সুজ লিমিটেড, ইফাদ অটোস লিমিটেড, বিবিএস ক্যাবলস লিমিটেড, সিটি ব্যাংক লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড, গ্রামীণফোন লিমিটেড, জেনারেসন নেক্সট ফ্যাশানস লিমিটেড এবং কনফিডেন্স সিমেন্ট লিমিটেড।

Post A Comment: