চট্টগ্রামে চালু হলো নয়টি মডেল ফার্মেসি ও ২১টি মডেল মেডিসিন শপ। যেখান থেকে গত এক সপ্তাহ ধরে ওষুধ বিক্রি করছেন প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্টরা।
9-models-of-pharmacy-and-21-medical-shops-in-Chittagong 

চট্টগ্রামে চালু হলো নয়টি মডেল ফার্মেসি ও ২১টি মডেল মেডিসিন শপ। যেখান থেকে গত এক সপ্তাহ ধরে ওষুধ বিক্রি করছেন প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্টরা।


ওষুধ প্রশাসন চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন এসব তথ্য জানান।

মোজাম্মেল হোসেন জানান, ওষুধ প্রশাসন চট্টগ্রামের আওতায় নগরীর ৩০টি ব্যক্তি মালিকানাধীন ফার্মেসিকে মডেল ফার্মেসি ও মেডিসিন শপে রূপান্তর করা হয়েছে। এগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকলেও গত এক সপ্তাহ ধরে ওষুধ বিক্রি চলছে। এতে ক্রেতাদের ভালো সাড়া মিলছে। দোকানগুলোতে প্রশিক্ষিত ফার্মাসিস্টরা রোগীদের কোনো ওষুধ কী পরিমাণে দিচ্ছেন তা সংরক্ষণ ও ওষুধ শেষ হওয়ার আগেই ফার্মেসি থেকে ফোন করে মনে করিয়ে দিচ্ছেন।

ফার্মেসিগুলো হচ্ছে, নগরীর বায়েজিদ বোস্তামি এলাকার মেসার্স হাফছা হানিফ মেডিসিন ফার্মা, কুয়াইশ সংযোগ সড়কের মেসার্স কেয়ার অ্যান্ড কিউর ফার্মেসি, ও আর নিজাম রোডস্থ মেসার্স প্রিয় ফার্মেসি, পাঁচলাইশ এলাকার মেসার্স কুইক প্রেসক্রিপসন সার্ভিস, চকবাজার মেসার্স এমসি এম ফার্মা, দামপাড়াস্থ মেসার্স কুইক মেড, আগ্রাবাদ চট্টগ্রাম মা ও শিশু জেনারেল হাসপাতাল ফার্মেসি, হালিশহরস্থ মেসার্স কুইক প্রেসক্রিপসন সার্ভিস, বহদ্দারহাট জনতা ফার্মেসি।

মেডিসিন শপগুলো হচ্ছে, বন্দর থানাধীন মেসার্স সিবলী ফার্মেসি, বাকলিয়াস্থ মেসার্স পপুলার মেডিসিন শপ, লালখান বাজারস্থ মেসার্স মাঝুরি মেডিসিন শপ, খুলশীস্থ মেসার্স চট্টগ্রাম ডায়াবেটিক জেনারেল হাসপাতাল ফার্মেসি, পাঁচলাইশস্থ মেসার্স সাহান মেডিকো, একই এলাকার মেসার্স সাথী মেডিকেল হল অ্যান্ড সার্জিক্যাল, মেসার্স এপিক মেডিসিন কর্নার, মেসার্স পপুলার ডায়াবেস্টিক সেন্টার লি., মেসার্স সেবা ফার্মেসি, মেসার্স বিছমিল্লাহ ফার্মেসি, মেসার্স হাসান ফার্মেসি অ্যান্ড সার্জিক্যাল, মেসার্স শাহাদৎ ফার্মা, মেসার্স জোবেদা ফার্মেসি, মেহেদিবাগস্থ মেসার্স মাই কিউ. পি. এস ফার্মেসি, দামপাড়াস্থ মেসার্স পিনাকল ফার্মেসি, অক্সিজেন মোড়স্থ মেসার্স এন এম অক্সিজেন ফার্মেসি, বায়েজিদস্থ মেসার্স মার্ক ফার্মেসি, একই এলাকার মেসার্স আফছার মেডিসিন শপ, মেসার্স আল-শেফা ফার্মেসি, পাহাড়তলীস্থ মেসার্স জনতা ফার্মেসি ও আগ্রাবাদস্থ মেসার্স ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল ফার্মেসি।

গতকাল ৯ আগস্ট বুধবার নগরীর চকবাজারস্থ মেসার্স এমসি এম ফার্মায় ওষুধ কিনতে আসা রোগী হাজী নজরুল ইসলাম বলেন, এই মডেল ফার্মেসি থেকে শ্বাসকষ্টের ইনহেলার কিনেছি। যা ন্যায্যমূল্যে পেয়েছি। এর আগে এই ওষুধ কিনতে ৪০ টাকা বেশি লেগেছে। তাছাড়া ওষুধ সেবনের নিয়ম-কানুন শিখিয়ে দিয়েছেন। যা দেখে মনে হয়েছে আগে ভুলভাবে ব্যবহার করেছি। 

ওষুধ প্রশাসন চট্টগ্রামের পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মডেল ফার্মেসি ও মেডিসিন শপে নকল, মেয়াদোত্তীর্ণ ও অনুমোদনহীন ওষুধ বিক্রির কোনো সুযোগ নেই। কারণ যেসব ওষুধ বিক্রি করা হবে, তা তারা কম্পিউটারে লিপিবদ্ধ রাখবেন। আমরা মাঝে মধ্যে গিয়ে তা মনিটরিং করবো।

তিনি বলেন, বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ১০ হাজারেরও অধিক লাইসেন্সপ্রাপ্ত ফার্মেসি রয়েছে। যেগুলোকে ধীরে ধীরে মডেল ফার্মেসির আওতায় নিয়ে আসা হবে।

Post A Comment: