দুই বছর আগের ঘটনা। এক হ্যাকার তার বাম হাতে ছোট একটি ‘এনএফসি চিপ’ বসান। এর মাধ্যমে তিনি হ্যাক করতে থাকেন বিভিন্ন অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন। ভাঙতে থাকেন বিভিন্ন ইন্টারনেট ডিভাইসের নানা নিরাপত্তা ব্যবস্থা।



দুই বছর আগের ঘটনা। এক হ্যাকার তার বাম হাতে ছোট একটি ‘এনএফসি চিপ’ বসান। এর মাধ্যমে তিনি হ্যাক করতে থাকেন বিভিন্ন অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন। ভাঙতে থাকেন বিভিন্ন ইন্টারনেট ডিভাইসের নানা নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এর এক বছরের মাথায় অারেকজন হ্যাকার তার হাতের চামড়ার ভেতরে বিটকয়েন ওয়ালেটের প্রাইভেট কি এর সঙ্গে ছোট ‘এনএফসি চিপ’ ব্যবহার করেন। যাতে হাতের ইশারার মাধ্যমে তিনি যেকোনো সময় যেকোনো কিছু কিনতে পারেন এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারেন।

এগুলোই ছিল শুরু। এখন বিষয়টি বাস্তবে রূপ নিতে যাচ্ছে। আর এই প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের মার্কেটিং সল্যুশন প্রভাইডার ‘থ্রি স্কয়ার মার্কেট’ বা ‘৩২এম’ নামে প্রযুক্তি বিষয়ক একটি কোম্পানি।

সম্প্রতি কোম্পানিটি জানিয়েছে, তারা তাদের সকল কর্মীদের হাতে এই মাইক্রোচিপটি বসাতে যাচ্ছে। আর এটিই হবে প্রথম কোম্পানি যেটি তার কর্মীদের হাতে মাইক্রোচিপ প্রযুক্তি ব্যবহার করতে যাচ্ছে।

জানা গেছে, এই মাইক্রোচিপটির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা খাবার কিনতে পারবেন, দরজা খুলতে পারবেন, কম্পিউটার চালুসহ ফটোকপি মেশিন ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কাজেও কর্মীরা এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টোড ওয়েস্টবাই বলেন, এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনেক কিছুই করা সম্ভব। আগামী ১ আগষ্ট ৩২এম এর সদরদপ্তরে ‘চিপ পার্টির’ আয়োজন করা হয়েছে। সেদিন আগ্রহী কর্মীদের হাতে এ চিপটি বসানো হবে। 

Post A Comment: